বিরিয়ানি ছাড়া চলবেই না সরফরাজের!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
করাচির বিরিয়ানি বেশ পছন্দ সরফরাজ আহমেদের

করাচির বিরিয়ানি বেশ পছন্দ সরফরাজ আহমেদের

  • Font increase
  • Font Decrease

হঠাৎ করেই পথ হারিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। এইতো কিছুদিন আগে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ওয়ানডে সিরিজে নাজেহাল হয়েছে সরফরাজ আহমেদের দল। ০-৫ ব্যবধানে সেই হারের লজ্জায় দল ডুবতেই সমালোচনার তোপে আছে পাকিস্তান দল। বিশ্বকাপের ঠিক আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে হতাশা প্রকাশ করছেন অনেকেই! এরইমধ্যে দলের ক্রিকেটারদের একহাত দিয়েছেন ওয়াসিম আকরাম। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের এই মহাতারকা এই ব্যর্থতার জন্য পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ফিটনেস আর খাবার মেন্যু নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন!

দলের ক্রিকেটারদের খাদ্যাভ্যাস নিয়ে ওয়াসিমের আক্রমণ পাত্তা দিচ্ছেন না সরফরাজ আহমেদ। ভাবটা এরকম সবার আগে বিরিয়ানি, তারপর ফিটনেস!

ওয়াসিম আকরাম বলছিলেন, ‘পিসিবি দলের ক্রিকেটারদের এখনো বিরিয়ানি দেয়! এটা বিস্ময়কর! আপনি ওদের বিরিয়ানি খাইয়ে চ্যাম্পিয়ন দলের বিপক্ষে ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে পারেন না।’

ভুল বলেন নি ওয়াসিম আকরাম। এরইমধ্যে পাকিস্তান দলের বেশ কয়েকজনের ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিশেষ করে ইমাদ ওয়াসিম, আবিদ আলী, ইয়াসির শাহ, মোহাম্মদ হাসনাইন ও উমর আকমল কিছুদিন আগেই ইয়ো-ইয়ো টেস্টে পাশ মার্ক পাননি।

এ অবস্থায় ফিটনেস জন্য বিরিয়ানিকে দোষ দিচ্ছেন না সরফরাজ। পাকিস্তান অধিনায়ক সাফ জানিয়ে রাখলেন, ‘দেখুন, কারো শরীর যদি নির্দিষ্ট খাবারের সঙ্গে মানিয়ে নেয়, তাহলে সেসব খাবার থেকে দূরে থাকা যায় না। আমার কথাটাই বলতে পারি। আমি করাচির বিরিয়ানি পছন্দ করি। তার সঙ্গে বিফ কোর্মা ও শেরমল রুটি হলে চাঙ্গা হয়ে উঠি। বিরিয়ানি যেকোনো ধরনের হতে পারে, তবে মাংসটা ভালো হতে হবে আর ভেতরে থাকতে হবে মসলা।’

৩০ মে শুরু ওয়ানডে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে ওয়ানডে শ্রেষ্টত্বের লড়াইয়ে ভাল খেলতে না পারলে এই কথাগুলোও বুমেরাংয়ের মতো ছুটে আসবে সরফরাজদের দিকে। সন্দেহ নেই তখন কথা খুঁজে পাবেন না তারা!

আপনার মতামত লিখুন :