Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলে ‘বিপ্লব’!

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলে ‘বিপ্লব’!
নেতৃত্ব হারালেও দলে আছেন লাসিথ মালিঙ্গা
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা। অধিনায়ক হিসেবে দিমুথ করুণারত্নের নাম আগেই জানানো হয়েছিলো। এবার জানানো হলো বাকি ১৪ জনের নাম। এক কথায় বলা যায়, এবারের বিশ্বকাপের দলের জন্য শ্রীলঙ্কা যাদের বেছে নিয়েছে এবং যে প্রক্রিয়ায় তাদের নির্বাচিত করা হয়েছে সেটা সবাইকে অবাক করেছে। বিশ্বকাপ দলের নাম ঘোষণায় এক অর্থে বিপ্লবই ঘটিয়েছে শ্রীলঙ্কা!

দলের অধিনায়ক যাকে করা হয়েছে সেই করুণারত্নে শ্রীলঙ্কার হয়ে সর্বশেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে। পেছনের চার বছরে ওয়ানডে দলেই নেই তিনি। সেই তাকেই করা হয়েছে এবারের বিশ্বকাপের অধিনায়ক!

শুধু অধিনায়কই নয়, দলের আরো চারজন খেলোয়াড়কে এবারের বিশ্বকাপ দলে রাখা হয়েছে যারা অন্তত একবছর ধরে ওয়ানডে দলেই নেই। নামগুলো শুনুন-ব্যাটসম্যান লাহিরু থিরিমান্নে, স্পিন অলরাউন্ডার মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, জীবন মেন্ডিস ও লেগস্পিনার জেফরি ভ্যান্ডারসে। পেছনের একবছর তারা শ্রীলঙ্কার হয়ে কোন ওয়ানডে ম্যাচে না খেলেই ঠিক কোন বিবেচনায় সরাসরি বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়ে গেলেন-সেটা জানতে গোয়েন্দা নিয়োগের প্রয়োজন!

আর বিশ্বকাপ দলে উল্লেখযোগ্য যাদের জায়গা হয়নি সেই নামগুলো জানি এবার-উইকেটকিপার কাম ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকেভেলা, অফস্পিনার আকিলা ধনাঞ্জয়ে, ওপেনার ধানুস্কা গুনাথিলাকা, উপুল থারাঙ্গা এবং দিনেশ চান্দিমাল! এদের মধ্যে দিনেশ চান্দিমাল এই গতবছরের অক্টোবর মাসেও শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে দলের অধিনায়ক ছিলেন।

ওপেনার হিসেবে বিশ্বকাপ দলে শ্রীলঙ্কা বেছে নিয়েছে তরুণ আবিস্কা ফার্নান্দোকে। গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যিনি মামুলি পারফরমেন্স করেছেন। ইনজুরিতে কাহিল হয়ে পড়া পেসার নুয়ান প্রদ্বীপও যাচ্ছেন শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে।

পুরানো তারকাদের মধ্যে শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলে রয়ে গেছেন সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ও লাসিথ মালিঙ্গা, অলরাউন্ডার থিসারা পেরেইরা এবং সুরাঙ্গা লাকমাল।

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দল: দিমুথ করুণারত্নে (অধিনায়ক), লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, থিসারা পেরেইরা, কুশাল পেরেইরা, ধনানঞ্জয়ে ডি সিলভা, কুশাল মেন্ডিস, ইসুরু উদানা, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, আবিস্কা ফার্নান্দো, জীবন মেন্ডিস, লাহিরু থিরিমান্নে, জেফরি ভ্যান্ডারসে, নুয়ান প্রদ্বীপ ও সুরাঙ্গা লাকমাল।

আপনার মতামত লিখুন :

খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগেই স্বপ্ন ভাঙল তাদের

খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগেই স্বপ্ন ভাঙল তাদের
রাঙ্গাটুঙ্গির নারী ফুটবল খেলোয়াড়রা। ছবি: সংগৃহীত

স্বপ্ন ছিল ফাইনালে খেলবে তারা। নিজ জেলার জন্য ছিনিয়ে আনবে চ্যাম্পিয়নের কাপ। সেই স্বপ্ন প্রায় পূরণের পথেই ছিল। কিন্তু শুক্রবার (১৯ জুলাই) খেলোয়াড়দের চোখের জলে ভাসল সেই স্বপ্ন। তবে খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগ মুহূর্তে দলটিকে বাদ দেয়া হয়েছে।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে ঢাকা থেকে বুকে কষ্ট ও চোখে পানি নিয়ে নিজ জেলায় ফিরে এসে ঠাকুরগাঁও রেলস্টেশনে বসে এসব কথা জানান রাঙ্গাটুঙ্গির নারী ফুটবল খেলোয়াড়রা।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সেমিফাইনালে ময়মনসিংহ জেলাকে টাইব্রেকারে ৩-২ গোল ব্যবধানে হারিয়ে জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৯ এর ফাইনালে উঠে ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে ফুটবলাররা। কিন্তু ফাইনাল খেলার ঠিক কিছুক্ষণ আগে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) কর্তৃপক্ষ জানায়, ফাইনাল খেলতে পারবে না ঠাকুরগাঁও।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563625534412.jpg

এ সময় স্টেডিয়ামে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল ঠাকুরগাঁওয়ের এসব নারী খেলোয়াড়, পরিচালকসহ সবাই। এক পর্যায়ে কষ্ট সহ্য করতে না পেরে অজ্ঞান হয়েছিলেন অনেকেই। কিন্তু এগিয়ে আসেনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কেউ। ঠাকুরগাঁওয়ের এই টিমটির কোনো কথাই শুনেনি তারা।

বাফুফের নিয়ম অনুযায়ী এই টুর্নামেন্টে একই খেলোয়াড় দুইবারের বেশি অংশ নিতে পারবে না। এর আগে ঠাকুরগাঁওয়ের ৪ জন ফুটবলার খেলেছে এই টুর্নামেন্টে। মূলত এ অভিযোগের কারণেই ফাইনালে খেলতে পারেনি ঠাকুরগাঁও।

কিন্তু বাফুফের সকল অভিযোগ মিথ্যা দাবি করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের এই টিমটি।

অভিযুক্ত সেই খেলোয়াড় রঞ্জনা কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘বাফুফে বলেছে আমি এর আগে দুইবার খেলেছি। কিন্তু তারাতো প্রমাণ দিতে পারেনি। আমি শুধু একবারই খেলেছি, সেটা নীলফামারীতে। তারা মিথ্যা বলেছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563625558843.jpg

মমতাজ নামের আরেক খেলোয়াড় বলেন, ‘বাফুফের কিরণ ম্যাডাম আমাদের সঙ্গে যে খারাপ আচরণ করেছে, তা খুবই কষ্টদায়ক। আমরা এর সঠিক তদন্ত চাই।’

ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে ফুটবলারের পরিচালক অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোরকে বলেন, ‘ফাইনাল খেলা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে বাফুফে চিঠি দেয় যে, আমাদের টিম খেলতে পারবে না। কী কারণে খেলতে পারবে না জানতে চাইলে তারা জানায় আমাদের চারজন খেলোয়াড় দুইবারের অধিক খেলেছে। এরপর আমি তাদের প্রশ্নের জাবাব দিলে তারা আমার কোনো কথাই শোনেনি। তারা একতরফাভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটা অন্যায় হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রংপুর ও ময়মনসিংহ থেকে যারা খেলেছে তাদের খেলোয়াড়দের বয়স বেশি। কিন্তু তাদের কিছু বলা হয়নি। আমাদের জেলার মেয়েদেরকে অপমান করা হয়েছে। কোথাও এমন নিয়ম নেই যে, কোনো খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে পুরো টিমকে বাদ দিয়ে দেবে।’

নতুন মিশনে দেশ ছাড়লেন তামিম-মুশফিকরা

নতুন মিশনে দেশ ছাড়লেন তামিম-মুশফিকরা
এবার তামিমদের শ্রীলঙ্কা মিশন

বিশ্বকাপ শেষে বিশ্রামের সুযোগ পেলেন না ক্রিকেটাররা। ফের নতুন মিশনে বাংলাদেশ দল। এবার শ্রীলঙ্কায় তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ কেটেছে ভাল-মন্দ মিলিয়ে। সেই রেশ থাকতেই শনিবার দুপুরে শ্রীলঙ্কার পথে দেশ ছেড়েছে টাইগাররা।

যদিও হঠাৎ করেই দলে বড় পরিবর্তন আনতে হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টকে। আগের রাতেই ইনজুরিতে ছিটকে পড়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার বদলে দলের নেতৃত্বে তামিম ইকবাল। অর্ধেক দল নিয়েই দেশ ছেড়েছেন তিনি।

অধিনায়ক মাশরাফির পাশাপাশি ইনজুরিতে অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। এই দুই ক্রিকেটারের বদলে দলে ডাক পেলেন ফরহাদ রেজা ও তাসকিন আহমেদ।

দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও মাশরাফিকে ছাড়া সিরিজটা চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে করেন তামিম।

দেশ ছাড়ার আগে অধিনায়ক বলছিলেন, ‘সিরিজটা আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এই দলের প্রমাণ করার অনেক কিছু রয়েছে। চোট ও অন্যান্য কারণে দলের কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার এই সিরিজে যাচ্ছে না। এই সিরিজ অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং। বিশেষ করে শ্রীলঙ্কা তাদের নিজেদের কন্ডিশনে অনেক শক্তিশালী দল। তবে এর আগের সিরিজগুলোতে আমরা ওদের মাঠে অনেক ভালো করেছি। এবারও ভালো না খেলার কোন কারণ নেই।’

চট্টগ্রামে আফগানিস্তান ‘এ’ দলের বিপক্ষে সিরিজ ও ভারতে একটি টুর্নামেন্টে খেলার কারণে ১৪ জনের দলের মধ্যে ৭ জন যাচ্ছেন পরে। শনিবার দেশ ছেড়েছেন তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মুস্তাফিজুর রহমান।

আফগানিস্তানের ‘এ’ দলের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলে দেশ ছাড়বেন এনামুল হক বিজয়, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমান ও ফরহাদ রেজা। ভারত থেকে শ্রীলঙ্কায় উড়ে যাবেন- তাসকিন আহমেদ ও তাইজুল ইসলাম। রোববার যাওয়ার কথা রুবেল হোসেনের।

২৩ জুলাই একটি প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে শ্রীলঙ্কা সফর। এরপর আগামী ২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই স্বাগতিকদের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ।

ওয়ানডের বাংলাদেশ দল-

তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিঠুন, তাসকিন আহমেদ, মুশফিকুর রহিম, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার, ফরহাদ রেজা, মোসাদ্দেক হোসেন, তাইজুল ইসলাম ও এনামুল হক বিজয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র