Barta24

শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

English

ডাবল সেঞ্চুরির ‘গল্পটা’ শোনালেন সৌম্য

ডাবল সেঞ্চুরির ‘গল্পটা’ শোনালেন সৌম্য
ইতিহাস গড়লেন সৌম্য সরকার
এম. এম. কায়সার
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ত্রৈমাসিকে ভাল ফল নয়। অর্ধবার্ষিকীর ফলও সন্তোষজনক কিছু নয়। কিন্তু বার্ষিক পরীক্ষার ফল যখন বেরুলো দেখা গেলো-ছেলেটা সবাইকে ছাড়িয়ে প্রথম স্থান অধিকার করে বসেছে!

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে নিজের পারফরমেন্সকে ঠিক এমন বিস্ময়কর ব্যাখায় ফেলতে পারেন সৌম্য সরকার। টুর্নামেন্টের শেষ দুই ম্যাচের আগে তার ফর্ম নিয়ে সবাই এতোই দুঃশ্চিন্তায় ছিলো প্রতিদিনই সৌম্য সম্পর্কে বিষয় শেষ হতো একটা প্রশ্নে-‘ছেলেটা ফর্মে নেই। কি যে হবে?’

পরিসংখ্যান জানাচ্ছে লিগে নিজের প্রথম ১১ ম্যাচে সৌম্যের ব্যাটে বলার মতো কোন রান নেই। ম্যাচ জয়ী ইনিংস তো দুরের কথা! কোন হাফসেঞ্চুরি পর্যন্ত নেই। সর্বোচ্চ রান ছিলো ৪৩। বেশ কয়েকটি ম্যাচে শুরুটা ভালো হলেও ৩০/৪০ এর ঘরে শেষ সেই ভালো ইনিংস। তাই প্রায় প্রতি ম্যাচ শেষেই সৌম্য ফিরছেন মাথায় দুঃশ্চিন্তা নিয়ে এবং বাকিদের দুঃশ্চিন্তা বাড়িয়ে!

তবে সবার চিন্তা দুর করে দিলেন সৌম্য লিগের শেষ দুই ম্যাচে। এই দুই ম্যাচেই সেঞ্চুরি। দুই ম্যাচেই ম্যাচসেরা। রূপগঞ্জকে হারানোর ম্যাচে ১০৬ রান। আবাহনী জিতলো সেই ম্যাচ বড় ব্যবধানে। আর মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) লিগের শেষ ম্যাচে সৌম্য ব্যাট হাতে যা করলেন তাতেই রচিত বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে নতুন ইতিহাস।

করলেন ডাবল সেঞ্চুরি। হাঁকালেন রেকর্ড ১৬ ছক্কা। আবাহনী এই ম্যাচও জিতলো সহজেই। এবং ট্রফি নিয়ে উল্লাস মাতলো দল। ম্যাচ শেষে নিজের বাজে সময় এবং ভালো সময়ের ব্যাখায় সৌম্য সরকার বলছিলেন-‘আমার ব্যাটিংয়ের কোন কিছু বদল হয়নি। আমার ব্যাটিং আমার কাছেই আছে। আগের ম্যাচগুলোয় রান করিনি। এখন করছি। আক্ষেপ হচ্ছিলো শুরুতে ৩০/৪০ রান করে আউট হচ্ছিলাম। মাঝে কিছু ম্যাচে ১,২, ০ রানেও আউট হয়েছি। পরে মনে হলো, ১,২ বা শূন্য রানের চেয়ে ৩০/৪০ রান ভালো। ওটাতে আগে ফিরতে হবে। যখন ৩০/৪০ রান করেছি, তখন মনে হয়েছে আজ এই রানে আর ফেরা যাবে না। আজ ৫০ করতেই হবে। এভাবেই মাঠেই পরিকল্পনা করেছি। আগে থেকে পরিকল্পনা করে গেলে কিছুই হচ্ছিলো না যে! এই ম্যাচে উইকেট ভালো ছিলো। সুযোগ ছিলো বড় রান করার।’

ওয়ানডে ম্যাচে খেলতে নামলে সবাই হয়তো বড় রানের স্বপ্নই দেখে। সেঞ্চুরির চিন্তা করে। কিন্তু তাই বলে একেবারে ডাবল সেঞ্চুরি! সৌম্যের এমন কোনো চিন্তা ছিলো না-‘১৯০ রানের আগ পর্যন্ত তো ডাবল সেঞ্চুরির চিন্তাই ছিলো না। তারপর থেকে একটু একটু করে স্বপ্নটা এলো। তখন মনে হলো না, এই সুযোগ ছাড়া যাবে না। যে কোনো উপায়ে করতেই হবে। একটু নার্ভাসনেসও কাজ করছিলো। শেষ পর্যন্ত তো হয়েই গেলো।’

১৫৩ বলে অপরাজিত ২০৮ রান। ১৪ বাউন্ডারি ও ১৬ ছক্কার সৌম্য সরকারের এই ইনিংস বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে গল্প করার মতো অনেক উপাদান রেখে গেলো!

আপনার মতামত লিখুন :

সেরেনার মুখোমুখি শারাপোভা

সেরেনার মুখোমুখি শারাপোভা
প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেবেন শারাপোভা ও সেরেনার মধ্যে একজন, ছবি: সংগৃহীত

দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে ইউএস ওপেন। ২৬ আগস্ট থেকে কোর্টে গড়াচ্ছে বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসর। টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডেই মারিয়া শারাপোভার দেখা হয়ে যাচ্ছে সেরেনা উইলিয়ামসের সঙ্গে। তার মানে প্রথম রাউন্ডেই টেনিসের এক মহাতারকাকে হারিয়ে কিছুটা হলেও সৌন্দর্য হারিয়ে ফেলবে আসরটি।

নিউইয়র্কের ফ্লাশিং মিডোসে ব্রিটেনের জোহান্না কোন্টা মোকাবেলা করবেন রাশিয়ার দারিয়া কাসাতকিনাকে।

শিরোপা ধরে রাখার মিশনে নামছেন ১৬ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন নোভাক জোকোভিচ। সার্বিয়ান এ নাম্বার ওয়ান খেলবে স্প্যানিশ তারকা রবার্তো কারবালেস বায়েনার বিপক্ষে।

মেয়েদের এককে গত বারের চ্যাম্পিয়ন জাপানের নাওমি ওসাকার প্রতিপক্ষ রাশিয়ার আন্না ব্লিনকোভা। উইম্বলডন জয়ী সিমোনা হ্যালেপ লড়বেন বাছাই পর্ব উতড়ে আসা এক কোয়ালিফাইয়ারের বিপক্ষে। তবে তার প্রতিপক্ষ এখনো ঠিক হয়নি।

১৮ মেজর ট্রফির মালিক ক্লে-কোর্টের রাজা স্পেনের রাফায়েল নাদাল নতুন মিশন শুরু করবেন অস্ট্রেলিয়ার জন মিলম্যানের ম্যাচ দিয়ে। ২০ গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক সুইস মহাতারকা রজার ফেদেরার খেলবেন একজন কোয়ালিফাইয়ারের বিপক্ষে। বাছাই পর্ব শেষ না হওয়ায় তার প্রতিপক্ষ এখনো ঠিক হয়নি।

নেইমারের দাম ২৫০ মিলিয়ন ইউরো!

নেইমারের দাম ২৫০ মিলিয়ন ইউরো!
নেইমারকে পেতে চলছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোর লড়াই, ছবি: সংগৃহীত

নেইমারকে দলে টানতে চেষ্টার কোনো ত্রুটি রাখছে না রিয়াল মাদ্রিদ। হাল ছেড়ে দেইনি বার্সেলোনাও। চলছে তাদের মধ্যে রশি টানাটানি। দুদল কোনো ভাবেই প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) খুশী করতে পারছে না।

নেইমারকে পেতে আর্থিক ভাবে লোভনীয় প্রস্তাব দিয়েছে রিয়াল। বার্সার সাবেক এ তারকা ফরওয়ার্ডের জন্য ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে রাজি তারা। এখানেই শেষ নয়, সঙ্গে তিনজন ফুটবলারকেও দিতে চায় সান্টিয়াগো বার্নাব্যু শিবির। দিতে চায় গ্যারেথ বেল, কেইলর নাভাস ও হামেস রদ্রিগেজকে।

কিন্তু এতো কিছুতেও কোচ জিনেদিন জিদানের ক্লাব গলাতে পারেনি প্যারিসের জায়ান্ট ক্লাবটির কর্তৃপক্ষের মন। মানে তাদের এমন অবাক করা প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছে পিএসজি।

এ মৌসুমে নেইমারকে ধারে দলে ভেড়াতে চায় বার্সেলোনা। পরের মৌসুমে স্থায়ীভাবে ব্রাজিলিয়ান এ তারকা স্ট্রাইকার কিনতে ইচ্ছুক ১৫০ মিলিয়ন ইউরোতে। কিন্তু পিএসজি এ প্রস্তাবটাও ফিরিয়ে দিয়েছে। নেইমারের বিনিময়ে তারা চায় ২৫০ মিলিয়ন ইউরো।

এ দিকে শোনা যাচ্ছে, রিয়ালে না যেতে নেইমারকে অনুরোধ করেছে বার্সা। এমনকি তাকে চির প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাবের সঙ্গে কোনো ধরনের যোগাযোগ করতে নিষেধ করেছে ন্যু ক্যাম্প শিবির। যদিও গুঞ্জন আছে, বার্সার চেয়ে রিয়ালের কাছেই নেইমারকে বিক্রি করতে ইচ্ছুক পিএসজি।

২০১৭ সালের আগস্টে ট্রান্সফার মার্কেটে বিশ্বরেকর্ড গড়ে ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি জমান নেইমার। বনে যান বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলার।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র