Barta24

শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

English

ফাইনালে খেলবেন সাকিব, যদি না...!

ফাইনালে খেলবেন সাকিব, যদি না...!
বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ডে তিনজাতি ক্রিকেট ম্যাচে সাকিবের হঠাৎ ইনজুরি/ ছবি: সংগৃহীত
 স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

প্রথম ম্যাচে ৮ উইকেটের জয়। দ্বিতীয় ম্যাচ ৫ উইকেটে। তৃতীয় ম্যাচে জিতল বাংলাদেশ ৬ উইকেটে। তিন ম্যাচে দাপুটে জয়। তিন ম্যাচের কোনো সময়ে মনে হয়নি বাংলাদেশ ছাড়া এই ম্যাচে প্রতিপক্ষের জেতার সম্ভাবনা আছে। এমনই একতরফা ভঙ্গিতে জিতে টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ। দলের শুরুর এবং মাঝের প্রায় সব ব্যাটসম্যান বড় রান পেয়েছেন। বোলাররাও ভালো পারফর্ম করেছেন।

ঠিক যাকে বলে সবকিছু পাওয়া। তাই পেয়েছে বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ডে তিনজাতি ক্রিকেটের পেছনের তিন ম্যাচে। প্রতিটা ম্যাচের শেষে এসে অধিনায়ক দলের প্রশংসা করছেন। বিষয়টা বেশ স্বস্তির। তবে ফাইনালের আগে অস্বস্তির কাঁটা একটাই-সাকিবের হঠাৎ ইনজুরি!

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বুধবারের ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সময় পিঠের চোটে সমস্যায় পড়েন সাকিব। ততক্ষণে ম্যাচে তার হাফ সেঞ্চুরি হয়ে গেছে। ফিজিও মাঠে এসে তার পিঠে খানিকটা ম্যাসাজও করেন। ঔষুধও খান সাকিব। উঠেও দাঁড়ান। কিন্তু পিঠের পেশির সেই চোটের অস্বস্তিটা দূর হয়নি। যেহেতু দল ততক্ষণে ম্যাচ জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে প্রায়, তাই বাড়তি ঝুঁকি না নিয়ে সাকিব ড্রেসিংরুমে ফিরে আসেন। স্কোরবোর্ডে তার নামের পাশে লেখা হয়-সাকিব রিটায়ার্ট হার্ট।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/16/1557987204311.jpg

তার এই সর্বশেষ ইনজুরির মাত্রাটা কতখানি, সেটা জানার জন্য বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তবে প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী জানা গেছে-পিঠের পেশির এই চোট খুব বড় কোনো সমস্যা নয়। হঠাৎ করে এক রকম আবহাওয়া থেকে পুরো অন্য ধাঁচের আবহাওয়ায় খেলতে গেলে অনেকের পেশির সহনীয় ক্ষমতায় এমন সমস্যা তৈরি হতেই পারে। সম্ভবত সাকিবও সেই সমস্যায় পড়েছেন। যদি পিঠের পেশির তন্তুতে বেশি টান না পড়ে তবে সামান্য বিশ্রামেই এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠার কথা সাকিবের।

অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও তাই বলেছেন-‘টেনশনের কিছু নেই।’ শুক্রবারের ফাইনালে সাকিবকে রেখেই ম্যাচ পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বাংলাদেশ। অবশ্য ফাইনালের আগে বৃহস্পতিবার দলের অনুশীলন থেকে সাকিব বিশ্রামে থাকছেন। সাকিবের এই চোটের হাল হকিকত এবং এটি দীর্ঘমেয়াদি বাড়তি কোনো সমস্যা তৈরি করবে কিনা-সেই প্রশ্নের উত্তর আগে পেতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। তাৎক্ষণিকভাবে দলের ফিজিও’র কাছ থেকে অবশ্য ইতিবাচক ইঙ্গিতই মিলেছে। ফাইনাল বলেই সাকিব নিজেও এই ম্যাচে খেলতে আগ্রহী। তবে বিশ্বকাপের আগে যাতে এই চোট বাড়তি কোনো সমস্যা তৈরি না করে সেদিকেও সতর্ক  কোচ বাংলাদেশ দলের।

তিনজাতি টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলার চেয়ে সাকিবকে যে বাংলাদেশের বেশি প্রয়োজন বিশ্বকাপের মাঠেই।

 

আপনার মতামত লিখুন :

কন্ডিশনিং ক্যাম্পে আছেন মাশরাফিও

কন্ডিশনিং ক্যাম্পে আছেন মাশরাফিও
মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে মাশরাফি বিন মর্তুজা

ঈদের ছুটি কাটিয়ে ক্রিকেটাররা মাঠের অনুশীলনে ফিরছেন ১৯ আগস্ট। ৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের সঙ্গে এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু হবে। টেস্ট সিরিজ শেষে তিনজাতি টি-টুয়েন্টি সিরিজও অনুষ্ঠিত হবে সেপ্টেম্বর জুড়ে। এই দুই সিরিজকে কেন্দ্র করে নির্বাচকরা বাংলাদেশের ৩৫ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে একটি কন্ডিশনিং ক্যাম্পের আয়োজন করেছেন। এই ক্যাম্পে চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের সবাই থাকছেন। এমনকি টেস্ট এবং টি- টোয়েন্টি না খেলা মাশরাফি বিন মর্তুজাকে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে রেখেছেন নির্বাচকরা।

সিরিজে খেলার ন্যূনতম সম্ভাবনা নেই, এমন খেলোয়াড়দের কেন কন্ডিশনিং ক্যাম্পে রাখা হয়েছে? বার্তাটোয়েন্টিফোরের কাছে এই প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানালেন-‘কোন ক্রিকেটারের শারীরিক অবস্থা কি, ফিটনেস কেমন সেটা তো আমাদের ঠিক মতো জানা নেই এখন। কন্ডিশনিং ক্যাম্পে যোগ দিলে ফিজিও এবং ফিটনেস ট্রেনার সব ক্রিকেটারদের ফিটনেস সম্পর্কে জানতে পারবেন। মুলত সেই জন্যই চুক্তিতে থাকা সব ক্রিকেটারদের এই কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাকা হয়েছে।’

আগামী ১৯ আগস্ট মিরপুরে কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিলাভারায়ানের কাছে ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ক্রিকেটারদের রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে। কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ফিটনেস টেস্ট, জিম ও রানিং সেশন চলবে ২২ আগস্ট পর্যন্ত।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার জন্য ছুটি নেয়া এই কন্ডিশনিং ক্যাম্পে যোগ দিতে পারছেন না সাব্বির রহমান।

কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ক্রিকেটাররা-
ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাদমান ইসলাম, জাহিরুল ইসলাম, মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিথুন, মোসাদ্দেক হোসেন, সাব্বির রহমান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, শফিউল ইসলাম, ফরহাদ রেজা, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি, আবু হায়দার রনি, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজ, আরিফুল হক, ইয়াসির আলী চৌধুরী, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাইফ হাসান, নাইম শেখ, নাইম হাসান,শহিদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, ইয়াসিন আরাফাত মিশু, মেহেদি হাসান ও আমিুনল ইসলাম বিপ্লব।

অবসরের সিদ্ধান্ত জানাতে দু’মাস সময় চেয়েছেন মাশরাফি

অবসরের সিদ্ধান্ত জানাতে দু’মাস সময় চেয়েছেন মাশরাফি
মাশরাফির অবসর নিয়ে রহস্য কাটছেই না

মাশরাফি বিন মর্তুজার ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার বিষয়টা নিয়ে আর লুকোছাপা করছে না বিসিবি। এই বিষয়ে মাশরাফির নিজস্ব সিদ্ধান্ত কি সেটা বিসিবি জানতে চায়। শনিবার বিসিবির কার্যালয়ে এসে নিজের সিদ্ধান্ত জানিয়ে গেছেন মাশরাফি। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে আরো দু’মাস সময় চেয়েছেন। তখনই জানাবেন নিজের অবসর নেয়ার তারিখ।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের জানান-‘মাশরাফিকে আমরা এখানে ডেকেছিলাম। নতুন কোচ আমরা নিচ্ছি, সে বিষয়েও তার সঙ্গে আলোচনা করেছি। তাছাড়া তার অবসরের বিষয়টিও প্রসঙ্গ ছিলো। মাশরাফি জানিয়েছে- সে মাস দুয়েকের পরে তার সিদ্ধান্ত আমাদের জানাবে।’

সামনের মাসে তিনজাতি টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলতে জিম্বাবুয়ে আসছে বাংলাদেশ সফরে। সেই সফরে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে একটি ওয়ানডে ম্যাচের আয়োজন করে বিসিবি মাশরাফিকে বিদায় জানানোর প্রাথমিক একটা পরিকল্পনা করেছিলো। তবে আপাতত সেই পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছে বিসিবি।

নাজমুল হাসান বলছিলেন-‘মাশরাফি যখন সময় চেয়েছে তখন আমরা সেটা মেনে নিয়েছি। তাছাড়া চলতি বছর আমাদের আর কোনো ওয়ানডে ম্যাচ নেই। তাই আমরা অপেক্ষায় থাকতেই পারি।’

লম্বা সময় ধরে ক্রিকেট খেলে যাওয়া অনেক ক্রিকেটারের ভাগ্যেই মাঠ থেকে বিদায় নেয়ার সৌভাগ্য হয়নি। মাশরাফির অন্তত যাতে সেই সৌভাগ্য হয়, সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছে বিসিবি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র