Alexa

ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য বিশ্বকাপ জিততে চান কোহলি

ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য বিশ্বকাপ জিততে চান কোহলি

বিরাট কোহলির চোখ বিশ্বকাপ ট্রফিতে

-অনুপ্রেরণার উৎস?

উত্তরটা দিতে বেশি সময় নিলেন না বিরাট কোহলি। এক নিঃশ্বাসে বলে গেলেন-‘ দেশের সুরক্ষায় সেনাবাহিনীর অবদানের কোনো তুলনা নেই। আমরা মাঠের ক্রিকেট খেলতেও তাদের কাছ থেকেই অনুপ্রেরণা পাই। ভারতের সেনাবাহিনীর জওয়ান ও তাদের পরিবারের জন্য এই বিশ্বকাপ আমরা জেতার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবো।’

বিশ্বকাপে খেলতে মঙ্গলবার, ২২ মে ইংল্যান্ড রওয়ানা হচ্ছে ভারতীয় দল। তার আগে মুম্বাইয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বিশ্বকাপে তার দলের সম্ভাবনা নিয়ে বললেন অনেক কথা। তবে সংবাদ সম্মেলনের অনেক অংশই জুড়ে রইলো ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হওয়ার বিষয়টি।

কোহলি বলছিলেন-‘আসলে অনুপ্রেরণা তো অনেক জায়গা থেকেই নেয়া যায়। তবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হওয়ার বিষয়ের সঙ্গে আর কোনো কিছুরই তুলনা চলে না। দেশ সুরক্ষায় তারা যে অবদান রেখে চলেছেন তা তুলনাহীন। বিশ্বকাপের মতো আসরে খেলতে গেলে প্রেষণা বা অনুপ্রেরণার ক্ষেত্রটা একেকজনের একেক রকম। তবে সম্মিলিতভাবে আমরা যদি সেনাবাহিনীর অবদানের কথাটা মনে রেখে অনুপ্রাণিত হই তাহলে বিশ্বকাপের মাঠেও বাড়তি একটা তাগিদ, জোস পাবে পুরো দল।’

চলতি বছর ফ্রেব্রুয়ারিতে কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে সন্ত্রাসী হামলায় ভারতের ৪০ জন সেনা জওয়ান নিহত হন। ভারতীয় ক্রিকেট দল সেই নিহত সেনা জওয়ানদের পরিবারের পাশে এসে দাড়ায়। তাদের আর্থিক সহায়তার জন্য নিজেদের ম্যাচ ফি প্রদান করে। শুধু তাই নয়, আর্ন্তজাতিক মাঠেও সেনাবাহিনীর বিশেষ টুপি পরে ম্যাচে নামে ভারতীয় দল।

দেশ রক্ষায় ভারতীয় সেনা সদস্যদের অবদানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতেই বিরাট কোহলির দল এই পদক্ষেপ নেয়।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ভারত তাদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে ৫ জুন। সাউদাম্পটনে সেই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। তার আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে ভারত। ২৫ মে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে তারা মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। ২৮ মে লড়বে কার্ডিফে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে।

আপনার মতামত লিখুন :