পাকিস্তানকে হারিয়ে দিলো আফগানিস্তান!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
হাসমাতউল্লাহ শাহীদি, ছবি: সংগৃহীত

হাসমাতউল্লাহ শাহীদি, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপ এখনো শুরু হয়নি। কিন্তু টুর্নামেন্টের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচেই যে বড় অঘটন ঘটে গেলো! আফগানিস্তান হারিয়ে দিলো পাকিস্তানকে।

বৃস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ডে পাকিস্তানের ২৬২ রানের স্কোর আফগানিস্তান ৩ উইকেট হাতে রেখে জিতে নেয়। বিশ্বকাপের চার সেমিফাইনালিস্টদের একটি দল হিসেবে অনেকেই রেখেছেন পাকিস্তানকে। সেই ফেভারিট পাকিস্তানকে হারিয়ে দিলো ১০ দলের র‌্যাঙ্কিংয়ের ১০ নম্বরে থাকা দল আফগানিস্তান।

ইংল্যান্ডের কাছে ৪-০ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হারা পাকিস্তান বোলারদের ব্যর্থতায় বড় অসহায়বোধ করছিলো। আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের সেই বোলিং দুর্দশা কাটলো না।

প্রস্তুতি ম্যাচের ফলাফলকে মূখ্য বিষয় মনে করা হয় না। ক্রিকেটীয় প্রক্রিয়াটা সঠিক হচ্ছে কিনা- সেই খোঁজটাই বেশি থাকে সাধারণত প্রস্তুতি ম্যাচে। তো এই প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের প্রক্রিয়াও ভালো কিছু হলো না, সেই সঙ্গে ম্যাচে অপেক্ষাকৃত দুর্বল দলের কাছে হারে আত্মবিশ্বাসেও ছেদ পড়লো!

বাবর আজমের সেঞ্চুরি ও মিডলঅর্ডারে শোয়েব মালিকের ৪৪ রানের সুবাদে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের ইনিংস গুটিয়ে যায় ২৬২ রানে। কোটার পুরো ৫০ ওভারও ব্যাট করতে পারেনি পাকিস্তান।

পেসার দৌলত জাদরান ২টি উইকেট পান। তবে পাকিস্তানের ইনিংস সামনে বাড়ার গতিপথ রুদ্ধ করে দেন দুই স্পিনার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান। নবী ১০ ওভারে ৪৬ রানে ৩ উইকেট পান।

রশিদ খানের ৯ ওভারের স্পেলে ১ মেডেনসহ ৩১ রানে শিকার ২ উইকেট। জবাবি ইনিংসে আফগানিস্তানের ওপেনিং জুটিতে যোগ হয় ৮০ রান। শুরুর চার ব্যাটসম্যান উইকেট জমে গিয়ে খেলেন। মোহাম্মদ শাহজাদ ২৫ বল ২৩ রান করে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন।

তবে আরেক ওপেনার হযরতউল্লাহ জাজাই এই ম্যাচকে পুরোদুস্তর টি-টুয়েন্টি বানিয়ে দেন! ২৮ বলে ৮ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় করেন ৪৯ রান। স্ট্রাইক রেট ১৭৫! মিডলঅর্ডারে হাসমাতউল্লাহ শাহীদি ম্যাচে ফিনিসারের দায়িত্ব পালন করেন। ১০২ বল মোকাবেলা করে অপরাজিত ৭৪ রান করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

জয়ের কাছাকাছি এসে শেষের দিকে আফগানিস্তান টপাটপ তিনটি উইকেট হারালেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ হাতছাড়া হতে দেননি হাসমাতউল্লাহ শাহীদি। এই ম্যাচে পাকিস্তানের সেরা বোলার ওয়াহাব রিয়াজ।

৪৬ রানে তিনি ৩ উইকেট শিকার করেন। পাকিস্তানের দ্বিতীয় এবং শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ কার্ডিফে ২৬ মে। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ২৬২/১০ ( ৪৭.৫ ওভারে, বারব আজম ১১২, শোয়েব মালিক ৪৪, নবী ৩/৪৬, রশিদ ২/২৭)।

আফগানিস্তান: ২৬৩/৭ (৪৯.৪ ওভারে, হযরতউল্লাহ জাজাই ৪৯, রহমাত শাহ ৩২, হাসমাতউল্লাহ শাহীদি ৭৪*, নবী ৩৪, ওয়াহাব রিয়াজ ৩/৪৬)।

ফল: আফগানিস্তান ৩ উইকেটে জয়ী।

আপনার মতামত লিখুন :