Alexa

মাশরাফির শেষের শুরু!

মাশরাফির শেষের শুরু!

মাশরাফি

ওভালে লম্বা সময় ধরে চলা সংবাদ সম্মেলন শেষে মাশরাফি আরো খানিকক্ষণ সময় দিলেন বাংলাদেশি সাংবাদিকদের। যার অনানুষ্ঠানিক নাম আড্ডা! অনুশীলনে যাওয়ার তাড়া ছিলো তবুও খোশমেজাজে থাকা অধিনায়ক সাংবাদিকদের দাবি মেটালেন।

প্রশ্নটা সেই আড্ডায়ও উঠলো।

- শেষের শুরুর সময় হলো তাহলে মাশরাফির?

অধিনায়কের উত্তর-‘আরে কিসের শেষ! কি যে বলেন, শেষ বলে কি কিছু আছে নাকি?’
বাংলাদেশের বিশ্বকাপ শুরুর আগেরদিন নিজের শেষের শুরু নিয়ে কে ভাবতে চায়? মাশরাফিও এখন ওসব ভাবাভাবির মধ্যে নেই। ভাবনা জুড়ে কেবল একটাই পরিকল্পনা, বিশ্বকাপের শুরুটা ভালো করতে হবে। জিততে হবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে।

এবারের বিশ্বকাপ কে জিতবে সেই প্রশ্নের উত্তর মিলবে ১৪ জুলাই লর্ডসে। সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখানো বাংলাদেশ কতদুর যাবে সেই প্রশ্নের উত্তরের জন্যও অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। তবে একটা প্রশ্নের উত্তর জানা হয়ে গেছে বিশ্বকাপ শুরুর অনেক আগেই-এটা মাশরাফির শেষ বিশ্বকাপ!

শুধু কি বিশ্বকাপ নাকি আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারও? উত্তরটা যার দেয়ার কথা সেই মাশরাফি এখনো স্পষ্ঠ করে এই প্রসঙ্গে কিছু বলেননি। তবে বাস্তবতা এবং প্রাসঙ্গিকতা মানলে বলা যেতে পারে ক্রিকেটার মাশরাফির জন্য বিদায় মঞ্চ প্রস্তুত। বেলা শেষের সুরের রাগিনী তার চারধারে। বাংলাদেশের বিশ্বকাপের শুরু মানেই তো ক্রিকেটার মাশরাফিরও শেষের গল্পের শুরু!

গত বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের সময় থেকে মাশরাফিকে নিত্য শুনে আসতে হচ্ছে ‘শেষ বিষয়ক এই উপাখ্যান’! এবং সেই সঙ্গে একের পর এক প্রশ্ন।

- দেশের মাটিতে এটাই আপনার শেষ ওয়ানডে সিরিজ কিনা?
- দেশের মাটিতে এটাই আপনার শেষ ওয়ানডে ম্যাচ কিনা?

বারবার শোনা এই প্রশ্নের উত্তরে অধিনায়ক জানিয়েছিলেন-‘২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলার একটা মাইন্ড সেটআপ আছে আমার। তারপরও রিভিউ করার সুযোগ আছে, আমি যদি সেই অবস্থায় না থাকি তাহলে অবশ্যই আমাকে কুইট করতে হবে।’

তবে সেই সঙ্গে নিজের ক্রিকেট ভবিষ্যৎ নিয়ে রহস্যও ঠিকই রেখে দিয়েছেন মাশরাফি-‘বলা কঠিন, আসলে ভবিষ্যতের কথা তো বলা যায় না! আমার কোনকিছুই মাইন্ড সেট থাকে না। মাইন্ড সেট করে কিছু করি না। দেখা যাক সামনে কি হয়?’
প্রশ্নের উত্তরেও প্রশ্নবোধক চিহ্নটা কিন্তু রেখেই দিলেন মাশরাফি!

আপনার মতামত লিখুন :