ডি ভিলিয়ার্স চাননি বলেই নেই বিশ্বকাপে!

স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
আলোচনায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার ডি ভিলিয়ার্স

আলোচনায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেটার ডি ভিলিয়ার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

দক্ষিণ আফ্রিকা কোচ ওটিস গিবসন মনে করেন, মন থেকে চাইলে এবিডি ভিলিয়ার্স বিশ্বকাপে খেলতে পারতেন। আসলে তিনি নিজেই আসতে চাননি। যেকারণে এখন ওয়ানডে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরে নেই এ তারকা ব্যাটসম্যান। তাই বিরক্ত নিয়েই সাবেক এ অধিনায়কের প্রতি পাল্টা অভিযোগের তীর ছূড়ে দেন গিবসন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমার সন্দেহ এবি নিজে যতটা এখানে আসতে চায়, তারচেয়ে বেশি চায় অগণিত লোকজন। যদি ও আসতে চাইতো, তাহলে এখানে আসতে পারত।’

গিবসন আরো বলেন, ডি ভিলিয়ার্স জানতেন- বিশ্বকাপে খেলতে হলে তাকে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে হবে। কিন্তু তা তিনি করেননি। বেছে নেন আইপিএলকে। কিন্তু ফাফ ডু প্লেসিসের কাছে বিশ্বকাপে খেলার প্রস্তাব যখন দেন, ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। দল বাছাই শেষে ঘোষণাই বাকি ছিল শুধু।

গত ডিসেম্বরে অবসর ভেঙে ফিরে আসার জন্য ডি ভিলিয়ার্সকে অনুরোধও নাকি করে ছিলেন গিবসন। কিন্তু তখন ডি ভিলিয়ার্স সাফ জানিয়ে দেন, অবসরে গিয়ে তিনি ভালোই আছেন। নিজের সিদ্ধান্ত নিয়ে তিনি খুশী।

এবি ডি ভিলিয়ার্স বিশ্বকাপে খেলতে চেয়ে প্রস্তাব দিলেও তাতে সাড়া দেয়নি ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা। এমন খবরে পুরো ক্রিকেট দুনিয়ায় হৈচৈ পড়ে যায়। কেউ বলছেন তাকে বিশ্বকাপ দলে নেওয়া উচিত ছিল। আবার কেউ বলছেন তাকে দলে না নেওয়াই ভালো হয়েছে।

কিন্তু এ বিতর্কে মোটেই আগ্রহ নেই দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ ওটিস গিবসনের। বরং এতে যারপরনাই বিরক্ত তিনি।

তাই উইকেটরক্ষক ডি ভিলিয়ার্সের ওপর থেকে এখন মনোযোগটা সড়িয়ে ফেলতে চান গিবসন। তার কাছে এনিয়ে ভাবা সময় নষ্ট ছাড়া আর কিছু নয়। মনোযোগ দিতে চান কেবল বিশ্বকাপের ক্রিকেট লড়াইয়ে। ভাবতে চান কেবল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লড়াই নিয়ে।

এমনিতেই ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ ও ভারতের কাছে টানা তিন ম্যাচে হেরে দলের মানসিক অবস্থার বারোটা বেড়ে গেছে। এর পর ডি ভিলিয়ার্সকে নিয়ে ভাবার ফুসরত পাচ্ছেন কোথায় গিবসন।

সোমবার সাউদ্যাম্পটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ডি ভিলিয়ার্সকে নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হল গিবসনকে। তবে যথেষ্ট ধৈর্য্য নিয়ে ডি ভিলিয়ার্স বিতর্ক নিয়ে বিস্তারিত জানালেন এ ক্রিকেট গুরু।

আপনার মতামত লিখুন :