Barta24

রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

হেসে-খেলে আফগানদের হারিয়ে শীর্ষে ইংল্যান্ড

হেসে-খেলে আফগানদের হারিয়ে শীর্ষে ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের পর বল হাতেও দাপট। অনায়াসে জয়ের বন্দরে ইংল্যান্ড
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপের বড় মঞ্চে রীতিমতো অসহায় আত্মসমর্পনই করছে আফগানিস্তান। এবার ইংল্যান্ড উড়িয়ে দিয়েছে যুদ্ধ বিধ্বস্ত এই দেশটিকে। মঙ্গলবার স্বাগতিকদের রান পাহাড়ে চাপা পড়েছে গুলবাদিন নাইবের দল। এই জয়ের পথ ধরে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেল ইংল্যান্ড।

ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ১৫০ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড।

পাঁচ ম্যাচে স্বাগতিকদের ৪ জয়ে পয়েন্ট ৮। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট থাকলেও রানরেটে পিছিয়ে আছে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। ৭ পয়েন্ট নিয়ে এরপরই ভারত ও নিউজিল্যান্ড। ৫ পয়েন্ট নিয়ে বিশ্বকাপের টেবিলে ৫ নম্বরে বাংলাদেশ।

টস জিতে ব্যাটিং স্বর্গে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ইয়ন মরগান। আর নিজেই শুরু করেন টর্নেডো। ছক্কার ঝড় বইয়ে দিয়ে তুলে নেন শতরান। গড়েন ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড। দল তুলে ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩৯৮ রান। জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৪৭ রানে থামে আফগানরা।

বিশাল সংগ্রহের জবাবে খেলতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় আফগানিস্তান। ওপেনার নুর আলি জারদান ফিরে যান কোন রান না করেই। তারপর অবশ্য কিছুটা সময় লড়েছেন গুলবাদিন নাইব ও রহতম শাহ। দু'জন দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে জমা করেন ৪৮ রান। নাইব ফেরেন ৩৭ রানে। তারপর রহমত বিদায় নেন ৪৬ রানে।

এরপর হাশমতউল্লাহ শাহিদির ব্যাট কথা বলেছে। তিনি ফেরেন ৭৬ রানে। আসগর আফগান তুলেন ৪৪। কিন্তু তাদের এই ব্যাটিংয়ে শুধু ব্যবধানটাই কমেছে!

এর আগে বল হাতে নাজেহাল হয় আফগানিস্তানের বোলাররা। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩৯৭ রান করে ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপ ইতিহাসে যা ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান। কার্ডিফে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৬ উইকেটে ৩৮৬ রান ছিল আগের রেকর্ড।

ম্যাচে ইয়ন মরগান ৭১ বলে ৪ চার ও ১৭ ছক্কায় করেন ১৪৮ রান। শুধু বিশ্বকাপ নয়,ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড গড়েন তিনি। মরগান সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন ৫৭ বলে। বিশ্বকাপে এটি চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি। তার ওপরে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স (৫২ বল), অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৫১ বল) ও আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও’ব্রায়েন (৫০ বল)। আর এটি ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানের দ্রুততম।

ইংল্যান্ডের ইনিংসে মোট ছক্কা ছিল ২৫টি। যা ওয়ানডেতে এক ইনিংসে কোনো দলের সর্বোচ্চ। নিজেদের রেকর্ডই ভাঙল ইংল্যান্ড। এ বছর গ্রানাডায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৪ ছক্কা হাঁকায় দলটির ব্যাটসম্যানরা।

বল হাতে হতাশায় পুঁড়েছেন আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান। ৯ ওভারে দেন ১১০ রান। যা বিশ্বকাপে সবচেয়ে খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ড। ১৯৮৩ বিশ্বকাপে ওভালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের পেসার মার্টিন স্নেডেন দেন ১২ ওভারে ১০৫ রান।

আবার ওয়ানডেতে যৌথভাবে দ্বিতীয় খরুচে বোলিংয়ের রেকর্ডে নাম লেখান রশিদ। ২০১৬ সালে ট্রেন্ট ব্রিজে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১০ ওভারে ১১০ রান দেন পাকিস্তানের পেসার ওয়াহাব রিয়াজ। ২০০৬ সালে জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১০ ওভারে ১১৩ রান দিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়েন অস্ট্রেলিয়ার পেসার মিক লুইস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ৩৯৭/৬ (ভিন্স ২৬, বেয়ারস্টো ৯০, রুট ৮৮, মরগান ১৪৮, বাটলার ২, স্টোকস ২, মইন ৩১*, ওকস ১*; দৌলত ৩/৮৫, নাইব ৩/৬৮)
আফগানিস্তান: ৫০ ওভারে ২৪৭/৮ (জাদরান ০, নাইব ৩৭, রহমত ৪৬, শাহিদি ৭৬, আসগর ৪৪, নবি ৯, নাজিবউল্লাহ ১৫, রশিদ ৮, ইকরাম ৩*, দৌলত ০*; আর্চার ৩/৫২, উড ২/৪০, রশিদ ৩/৬৬)
ফল: ইংল্যান্ড ১৫০ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: ইয়ন মরগান

আপনার মতামত লিখুন :

হেরে উৎসব পেছাল বসুন্ধরার

হেরে উৎসব পেছাল বসুন্ধরার
২০ ম্যাচ জয়ের পর হার দেখল বসুন্ধরা কিংস

সামনে ছিল সহজ সমীকরণ-জিতলেই নিশ্চিত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা! প্রতিপক্ষ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। কিন্তু তাদের বিপক্ষে লক্ষ্য পূরণ হল না। প্রথমবারের মতো লিগ ট্রফি জয়ের উৎসব পিছিয়ে গেল বসুন্ধরা কিংসের। শনিবারের আরেক ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিংকে হারিয়ে গাণিতিক হিসাবে টিকে থাকল আবাহনী লিমিটেড।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে বসুন্ধরাকে ১-০ গোলে হারিয়েছে শেখ রাসেল। লিগে টানা ২০ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর হার দেখল নবাগত এই দলটি। তবে ২১ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই থাকল তারা। শেষ তিন ম্যাচ থেকে ৩ পয়েন্ট পেলেই চ্যাম্পিয়ন দলটি। ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে শেখ রাসেল।

এদিকে দিনের আরেক খেলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সাইফকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ঢাকা আবাহনী। ২২ ম্যাচে ১৮ জয়ে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে বসুন্ধরার পরই আছে তারা। ২১ ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে সাইফ স্পোর্টিং।

আগের ম্যাচেই মোহামেডানের কাছে আবাহনী হারে ০-৪ গোলে। সেই ধাক্কা সামলে উঠল তারা। তবে সাইফকে ৩৭ মিনিটে এগিয়ে দেন ড্যানিয়েল করদোপা। এরপরই আবাহনী পায় চার গোল। অবশ্য প্রথম দুটিই এসেছে পেনাল্টি থেকে। ৫১ মিনিটে সানডে ও ৫৯ মিনিটে নাবিব নেওয়াজ জীবন তুলে নেন গোল।

এরপর ৬৫ মিনিটে সানডে আরেকটি ও ৮০ মিনিটে মামুনুল ইসলাম গোল করলে হাসিমুখে মাঠ ছাড়ে আবাহনী।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শনিবার লিগের আরেক ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীকে ২-০ গোলে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। আরেক খেলায় ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ ৬-৩ গোলে হারিয়েছে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটিকে।

কলম্বোতে পা রাখল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

কলম্বোতে পা রাখল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল
নিরাপদেই শ্রীলঙ্কায় পৌঁছলেন তামিম-মোসাদ্দেক হোসেনরা

তামিম ইকবালের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন শ্রীলঙ্কায়। শনিবার দুপুরেই দেশ ছেড়েছিলেন টাইগার ক্রিকেটাররা। এরপর স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টার দিকে কলম্বোতে পা রাখেন তামিম-মুশফিকুর রহিমরা। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ খেলতে অবশ্য পুরো দল একসঙ্গে যেতে পারেনি।

গত ২১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার হোটেল ও চার্চে ভয়ংকর সন্ত্রাসী হামলায় প্রাণ হারিয়েছিল আড়াই শর বেশি মানুষ। এরপর থেকেই জরুরি অবস্থা জারি করে শ্রীলঙ্কা। সেই ঘটনার পর প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক দল হিসেবে বাংলাদেশ দল গেল শ্রীলঙ্কা সফরে। এ কারণেই বাংলাদেশ দলকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিচ্ছে শ্রীলঙ্কা। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিনিধিদের জন্য যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকে তাই পাবেন তামিম ইকবালরা।

চট্টগ্রামে আফগানিস্তান ‘এ’ দলের বিপক্ষে সিরিজ ও ভারতে মিনি রঞ্জি ট্রফিতে খেলার কারণে ১৪ জনের দলের মধ্যে ৭ জন যাচ্ছেন পরে। এরমধ্যে শনিবার কলম্বো গেলেন তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মুস্তাফিজুর রহমান। রোববার যাওয়ার কথা রুবেল হোসেনের। ইনজুরি সামলে নিয়েছেন এই পেস বোলার।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563635963858.jpg

আফগানিস্তানের ‘এ’ দলের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলে দ্বীপ দেশটিতে যাবেন এনামুল হক বিজয়, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমান ও ফরহাদ রেজা। ভারত থেকে শ্রীলঙ্কায় যাবেন- তাসকিন আহমেদ ও তাইজুল ইসলাম।

এর আগে শুক্রবার ইনজুরিতে এই সফর শেষ হয়ে যায় অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার। চোটের কারণে খেলতে পারছেন না পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও। তাদের বদলে দলে আছেন তাসকিন আহমেদ ও ফরহাদ রেজা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563635980900.jpg

আগামী ২৩ জুলাই একটি প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে শ্রীলঙ্কা সফর। এরপর আগামী ২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই স্বাগতিকদের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ১ আগষ্ট দেশে ফেরার কথা টাইগার ক্রিকেটারদের।

শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ দল-

তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, ফরহাদ রেজা ও তাসকিন আহমেদ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র