Barta24

মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

English

‘হৃদয় ভেঙে গেছে আমাদের’

‘হৃদয় ভেঙে গেছে আমাদের’
কিউই ক্যাপ্টেন কেন উইলিয়ামসনকে অভিনন্দন জানালেন বিরাট কোহলি- ছবি:আইসিসি
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

পুরো টুর্নামেন্ট দুর্দান্ত খেলে আসল লড়াইয়েই ফ্লপ! পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে সেমি-ফাইনালে উঠে এসেছিল ভারত। অথচ তারাই কীনা ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে খেলল এলোমেলো ক্রিকেট। হিসাব মিলছে না ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তদের। নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হারের পর হতাশাতেই পুঁড়ছেন বিরাট কোহলিরা। কেন এমন হলো-উত্তর খুঁজছেন ভারত অধিনায়কও।

অথচ বিশ্বকাপের লিগ পর্বে দুর্দান্ত দাপট দেখিয়েই ভারত পেয়েছিল সেমি-ফাইনালের টিকিট। সবার ওপরে থেকে শেষ চারে উঠলেও ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে ব্যাটসম্যানরা ফ্লপ! রিজার্ভ ডে-তে গড়ানো এই ম্যাচে লক্ষ্যটা আকাশ ছোঁয়া ছিল না!

ফাইনালের টিকিট পেতে দরকার ছিল মাত্র ২৪০। কিন্তু ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে সেই রান তুলতে পারেনি ভারত। রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলি-তিনজনই করেন মাত্র ১ রান করে। ৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলে উঠতে সাহায্য করেছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি আর রবিন্দ্র জাদেজা। শতরানের জুটি গড়লেও অবশ্য শেষ রক্ষা হয়নি।

টানা দুটি বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনাল থেকে বিদায় নিল ভারত। ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরেছিল তারা। এবার কিউই শেষ করে দিয়েছে বিরাট কোহলিদের স্বপ্ন!

এভাবে বিদায়ে হতাশ কোহলি। ভারত অধিনায়ক জানাচ্ছিলেন, ‘এভাবে বিদায়ে অবশ্যই খুবই হতাশ। খেয়াল করলে দেখবে বিশ্বকাপ জুড়েই অসাধারণ ক্রিকেট খেলেছি। কিন্তু ৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেটে বিশ্বকাপ শেষ হওয়াটা দুঃখজনক। হৃদয় ভেঙে গেছে আমাদের।’

কোহলি হারটাও মেনে নিয়েছেন। কারণ নিউজিল্যান্ড যোগ্য দল হিসেবেই উঠেছে ফাইনালে। বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের পর ভারত অধিনায়ক আরো বলেন, ‘দেখুন, নকআউটে যেকোনো দল জিততে পারে। এটা বলতে আপত্তি নেই নিউজিল্যান্ড আমাদের চেয়ে বেশি সুসংগঠিত ছিল। দারুণ খেলেছে ওরা। যোগ্য দল হিসেবেই ফাইনালে উঠেছে কিউইরা।’

একইসঙ্গে অবশ্য যে ভক্তরা এমন দুঃসময়ে পাশে আছে তাদের ধন্যবাদও জানালেন কোহলি। বলছিলেন, ‘আমাদের সকল ভক্তদের ধন্যবাদ। বিশ্বকাপে তারা আমাদের অসাধারণ সমর্থন যুগিয়েছেন আপনারা। আমাদের প্রতিটি ম্যাচেই হাজারো সমর্থক এসেছেন মাঠে।’

আপনার মতামত লিখুন :

পগবার পেনাল্টি মিস, আটকে গেল ম্যানইউ

পগবার পেনাল্টি মিস, আটকে গেল ম্যানইউ
পল পগবাকে আটকাতে ব্যস্ত উলভারহ্যাম্পটনের ফুটবলাররা

শেষ অব্দি ভিলেন পল পগবা। তার পেনাল্টি মিসেই আক্ষেপে পুড়ল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ভক্তরা। চেলসিকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে শুরু করা দলটাই কীনা এবার মুদ্রার অন্য পিঠটাও দেখল। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্সের মাঠে খেলতে নেমে জয় অধরা ম্যানইউর।

প্রতিপক্ষের মাঠে সোমবার রাতে ১-১ গোলে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে রেড ডেভিলরা।

অবশ্য ম্যাচের শুরু থেকে শেষ, পুরোটা জুড়েই দাপট ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডেরই। খেলার ২৭ মিনিটে এগিয়েও যায় ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ক্লাবটি। মার্কাস র‌্যাশফোর্ডের পাসে নিশানা খুঁজে নেন অ্যান্তোনিও মার্সিয়াল। ম্যানইউর হয়ে সব মিলিয়ে এটি তার পঞ্চাশ নম্বর গোল!

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/20/1566269665180.jpg

তবে এই ব্যবধানটা ধরে রাখা হয়নি। ৫৫তম মিনিটে খেলায় সমতা ফেরান রুবেন নেভেস (১-১)। তবে খেলার ৬৭তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো রেড ডেভিলরা। কিন্তু হতাশ করেন দলের ফরাসি মিডফিল্ডার পগবা। তার পেনাল্টি শট আটকে দেন উলভারের গোলরক্ষক রুই পাত্রিসিও। পেনাল্টি অবশ্য আদায় করে নিয়েছিলেন পগবাই!

এভাবেই বল দখলে এগিয়ে (৬৫%) থেকেও পয়েন্ট হারাল ম্যানইউ। নিজেদের মাঠে এক পয়েন্ট তুলে নিয়েছে  উলভারহ্যাম্পটন।

প্রিমিয়ার লিগে আগের রাতেই লেস্টার সিটির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিল চেলসি। কোচ হিসেবে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ফিরে টানা দুই ম্যাচে জয় অধরা থাকল ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের। ম্যানইউর বিপক্ষে বড় হারে শুরু হয় তার মিশন!

প্রীতি ম্যাচে মেসিহীন আর্জেন্টিনা

প্রীতি ম্যাচে মেসিহীন আর্জেন্টিনা
নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রীতি ম্যাচে খেলতে পারছেন না মেসি, ছবি: সংগৃহীত

লিওনেল মেসিকে ছাড়াই প্রীতি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা। শুধু মেসি নন। দলে নেই সার্জিও আগুয়েরো এবং অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তাদের অনুপস্থিতিতে আলবিসেলেস্তের আক্রমণভাগে নেতৃত্ব দিবেন পাওলো দিবালা।

৫ সেপ্টেম্বর চিলির বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। পাঁচ দিন পর মোকাবেলা করবে মেক্সিকোকে। এই দুই প্রীতি ম্যাচকে সামনে রেখে ২৭ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে কোচ লিওনেল স্কালোনি।

সম্প্রতি শেষ হওয়া কোপা আমেরিকা চলাকালে দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বেফাঁস মন্তব্য করে ছিলেন মেসি।

সে অপরাধে আন্তর্জাতিক ফুটবলে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন আর্জেন্টাইনে এ ফুটবল জাদুকর। একারণেই দল থেকে ছিটকে গেছেন বার্সার প্রাণভোমরা।

অক্টোবরে জার্মানির বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ ও বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের একটি ম্যাচও মিস করবেন মেসি।

প্রীতি ম্যাচের আগে বার্সার হয়ে লা লিগায় প্রথম ম্যাচ মিস করেছেন মেসি। ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে অবশ্য ১-০ গোলে হেরে যায় তার দল। কাফ ইনজুরি কাটিয়ে এখন একা একা অনুশীলন করছেন তিনি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, সতীর্থদের সঙ্গে অনুশীলন করতে প্রস্তুত এখন মেসি।

 

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র