২২৪ করলেই ফাইনালে ইংল্যান্ড

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট,বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
অজিদের হয়ে একাই লড়ে গেলেন স্টিভেন স্মিথ

অজিদের হয়ে একাই লড়ে গেলেন স্টিভেন স্মিথ

  • Font increase
  • Font Decrease

মাত্র ১৪ রানেই সাজঘরের পথ ধরলেন তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। মনে হচ্ছিল অল্প পুঁজিতেই বুঝি অলআউট হয়ে যাবে অস্ট্রেলিয়া। ঠিক তখনই হাল ধরলেন স্টিভেন স্মিথ। অনেকটা একাই টেনে নিয়ে গেলেন দলকে। শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বোলিং তোপ সামলে অজিরা তার ব্যাটেই সেমি-ফাইনালে গড়ল সম্মানজনক স্কোর।

তবে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠতে লক্ষ্যটা সাধ্যের মধ্যেই রেখেছে ইংল্যান্ড। বার্মিংহামে অস্ট্রেলিয়া টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪৯ ওভারে অলআউট হয়ে তুলেছে ২২৩ রান।

এর অর্থ ২২৪ রান তুললেই ফাইনালের টিকিট পেয়ে যাবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। লর্ডসে ১৪ জুলাইয়ের শিরোপা লড়াইয়ে উঠে গেছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম সেমি-ফাইনালে ১৮ রানে তারা হারিয়েছে ভারতকে।

এর আগে উইকেট বুঝতেই ভুল করেন অ্যারন ফিঞ্চ। প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তটা কিছুতেই যৌক্তিক হয়ে উঠেনি। ইংলিশ বোলারদের আক্রমণে অসহায় ছিলেন অজি ব্যাটসম্যানরা। প্রথম পাওয়ার প্লে’তে অজি ব্যাটিংয়ের ‘পাওয়ার ফেল’! প্রথম ১০ ওভারে তুলে ৩ উইকেটে মাত্র ২৭ রান।

এরপরই দারুণ দাপট দেখালেন স্টিভেন স্মিথ। বল টেম্পারিং কলঙ্ক কাটিয় উঠা এই ব্যাটসম্যান করেন ৮৫ রান। তার দৃঢ়তাতেই রক্ষা। না হলে দুইশর আগেই হয়তো শেষ হয়ে যেতো তাদের ইনিংস।

অ্যালক্স ক্যারির ব্যাটে ৪৬। এছাড়া দুই অঙ্কের দেখা পেয়েছেন শুধু গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (২২) ও মিচেল স্টার্ক (২৯)। তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন আদিল রশিদ ও ক্রিস ওকস।

দুর্দান্ত দাপটে লিগ পর্বের লড়াই শেষ করেছিল অস্ট্রেলিয়া। সবার আগে নিশ্চিত হয় তাদের শেষ চার। ৯ ম্যাচে ৭ জয় আর ২ হারে ১৪ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ৬ জয় ও ৩ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় হয়ে সেমিতে নাম লেখায় স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

রেকর্ড পাঁচবারের বিশ্বকাপ জয়ী অস্ট্রেলিয়াকেই অনেকে এগিয়ে রাখছেন সেমির লড়াইয়ে। রেকর্ডও তাদের হয়েই কথা বলছে। এ পর্যন্ত ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে ১৪৮ ম্যাচে। এরমধ্যে ৮২টিতে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। ৬১টিতে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ইংল্যান্ড।

২৫ জুন লিগ পর্বে দুদলের দেখা হয়েছিল লর্ডসে। সেই ম্যাচে আয়োজক ইংল্যান্ডকে ৬৪ রানে উড়িয়ে দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। আজও সেই সুখস্মৃতির পথেই হাঁটতে চায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। যদিও এবার হাতে পুঁজি একেবারেই কম! তবে লো-স্কোরিং এই ম্যাচটাতেও প্রাণ নিয়ে আসতে পারেন অজি বোলাররা। কারণ এই উইকেটে ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ নয়!

সংক্ষিপ্ত স্কোর-
অস্ট্রেলিয়া: ৪৯ ওভারে ২২৩/১০ (ওয়ার্নার ৯, ফিঞ্চ ০, স্মিথ ৮৫, হ্যান্ডসকম ৪, কেয়ারি ৪৬, স্টয়নিস ০, ম্যাক্সওয়েল ২২, কামিন্স ৬, স্টার্ক ২৯, বেহরেনডর্ফ ১, লায়ন ৫*; ওকস ৩/২০, আর্চার ২/৩২, উড ১/৪৫, রশিদ ৩/৫৪)।

আপনার মতামত লিখুন :