Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগেই স্বপ্ন ভাঙল তাদের

খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগেই স্বপ্ন ভাঙল তাদের
রাঙ্গাটুঙ্গির নারী ফুটবল খেলোয়াড়রা। ছবি: সংগৃহীত
নাহিদ রেজা
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ঠাকুরগাঁও


  • Font increase
  • Font Decrease

স্বপ্ন ছিল ফাইনালে খেলবে তারা। নিজ জেলার জন্য ছিনিয়ে আনবে চ্যাম্পিয়নের কাপ। সেই স্বপ্ন প্রায় পূরণের পথেই ছিল। কিন্তু শুক্রবার (১৯ জুলাই) খেলোয়াড়দের চোখের জলে ভাসল সেই স্বপ্ন। তবে খেলে পরাজিত হয়ে নয়, মাঠে নামার আগ মুহূর্তে দলটিকে বাদ দেয়া হয়েছে।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে ঢাকা থেকে বুকে কষ্ট ও চোখে পানি নিয়ে নিজ জেলায় ফিরে এসে ঠাকুরগাঁও রেলস্টেশনে বসে এসব কথা জানান রাঙ্গাটুঙ্গির নারী ফুটবল খেলোয়াড়রা।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সেমিফাইনালে ময়মনসিংহ জেলাকে টাইব্রেকারে ৩-২ গোল ব্যবধানে হারিয়ে জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৯ এর ফাইনালে উঠে ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে ফুটবলাররা। কিন্তু ফাইনাল খেলার ঠিক কিছুক্ষণ আগে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) কর্তৃপক্ষ জানায়, ফাইনাল খেলতে পারবে না ঠাকুরগাঁও।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563625534412.jpg

এ সময় স্টেডিয়ামে কান্নায় ভেঙে পড়েছিল ঠাকুরগাঁওয়ের এসব নারী খেলোয়াড়, পরিচালকসহ সবাই। এক পর্যায়ে কষ্ট সহ্য করতে না পেরে অজ্ঞান হয়েছিলেন অনেকেই। কিন্তু এগিয়ে আসেনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কেউ। ঠাকুরগাঁওয়ের এই টিমটির কোনো কথাই শুনেনি তারা।

বাফুফের নিয়ম অনুযায়ী এই টুর্নামেন্টে একই খেলোয়াড় দুইবারের বেশি অংশ নিতে পারবে না। এর আগে ঠাকুরগাঁওয়ের ৪ জন ফুটবলার খেলেছে এই টুর্নামেন্টে। মূলত এ অভিযোগের কারণেই ফাইনালে খেলতে পারেনি ঠাকুরগাঁও।

কিন্তু বাফুফের সকল অভিযোগ মিথ্যা দাবি করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের এই টিমটি।

অভিযুক্ত সেই খেলোয়াড় রঞ্জনা কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘বাফুফে বলেছে আমি এর আগে দুইবার খেলেছি। কিন্তু তারাতো প্রমাণ দিতে পারেনি। আমি শুধু একবারই খেলেছি, সেটা নীলফামারীতে। তারা মিথ্যা বলেছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/20/1563626294620.jpg

মমতাজ নামের আরেক খেলোয়াড় বলেন, ‘বাফুফের কিরণ ম্যাডাম আমাদের সঙ্গে যে খারাপ আচরণ করেছে, তা খুবই কষ্টদায়ক। আমরা এর সঠিক তদন্ত চাই।’

ঠাকুরগাঁওয়ের রাঙ্গাটুঙ্গির নারী ফুটবল দলের পরিচালক অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোরকে বলেন, ‘ফাইনাল খেলা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে বাফুফে চিঠি দেয় যে, আমাদের টিম খেলতে পারবে না। কী কারণে খেলতে পারবে না জানতে চাইলে তারা জানায় আমাদের চারজন খেলোয়াড় দুইবারের অধিক খেলেছে। এরপর আমি তাদের প্রশ্নের জাবাব দিলে তারা আমার কোনো কথাই শোনেনি। তারা একতরফাভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটা অন্যায় হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রংপুর ও ময়মনসিংহ থেকে যারা খেলেছে তাদের খেলোয়াড়দের বয়স বেশি। কিন্তু তাদের কিছু বলা হয়নি। আমাদের জেলার মেয়েদেরকে অপমান করা হয়েছে। কোথাও এমন নিয়ম নেই যে, কোনো খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে পুরো টিমকে বাদ দিয়ে দেবে।’

আপনার মতামত লিখুন :

আঘাতের ধকল কাটিয়ে মাঠে ফিরছেন স্মিথ

আঘাতের ধকল কাটিয়ে মাঠে ফিরছেন স্মিথ
নেটে ব্যাট হাতে নিজেকে ঝালিয়ে নিচ্ছেন স্টিভেন স্মিথ, ছবি: সংগৃহীত

মাঠের লড়াইয়ে ফিরতে যাচ্ছেন স্টিভেন স্মিথ। তবে প্রতিযোগিতামূলক কোনো ম্যাচে নয়। চলতি অ্যাশেজ সিরিজের অংশ হিসেবে ডার্বিশায়ারের বিপক্ষে একটি ট্যুর ম্যাচ খেলবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান।

ঘাড়ে বলের আঘাতের ধকল ইতোমধ্যে কাটিয়ে উঠেছেন স্টিভেন স্মিথ। এখন শতভাগ ফিট তিনি। পুরোপুরি সুস্থ হয়েই অস্ট্রেলিয়ার তারকা এ ব্যাটসম্যান রোববার নেমে পড়েছেন ব্যাটিং অনুশীলনে। সেই দুর্ঘটনার পর এই প্রথম ব্যাট হাতে বোলারদের মোকাবেলা করলেন তিনি।

ডার্বিতে তিন দিনের এ প্রস্তুতি ম্যাচ শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার। ম্যাচটি খেলেই ওল্ড ট্রাফোর্ডে হতে যাওয়া চতুর্থ টেস্টে খেলার পথ সুগম করতে চান স্মিথ। ম্যানচেস্টারে টেস্ট ম্যাচটি মাঠে গড়াবে ৪ সেপ্টেম্বর।

ড্র হওয়া দ্বিতীয় ও লর্ডস টেস্টে ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারের ঘন্টায় ৯২ মাইল বেগে ছুড়া বাউন্সারের আঘাতে মাঠে লুটিয়ে পড়ে ছিলেন স্মিথ। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছেড়ে ফের ব্যাট হাতে নেমে সবাইকে অবাক করে দেন। কিন্তু পরে আঘাতজনিত জটিলতা দেখা দেওয়ায় টেস্টের পঞ্চম দিন আর মাঠেই নামেননি। তার বদলে খেলেন মারনাস লাবুশেন। ছিটকে যান অ্যাশেজের চলমান তৃতীয় ও হেডিংলি টেস্ট থেকে।

১২ মাসের বল টেম্পারিং নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরেই দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন স্মিথ। এজবাস্টনে প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসেই পান সেঞ্চুরি (১৪৪ ও ১৪২)।সঙ্গে লর্ডসে সংগ্রহ করেন ৯২ রান।

 

শ্রীলঙ্কার জালে ৭ গোল বাংলাদেশের

শ্রীলঙ্কার জালে ৭ গোল বাংলাদেশের
আরেকটি জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ দল

বয়সভিত্তিক ফুটবলে দাপটের সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। স্বপ্নের ফুটবল খেলছে কিশোররা। তার পথ ধরে এবার উড়িয়ে দিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। দ্বীপ দেশটির বিপক্ষে তুলে নিয়েছে দুর্দান্ত এক জয়।

ছেলেদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ পেয়েছে টানা দ্বিতীয় জয়। কলকাতার কল্যাণী স্টেডিয়ামে রোববার বাংলাদেশের কিশোররা ৭-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। আল আমিন সরকার করেছেন পাঁচ গোল!

ভারতে চলমান এই টুর্নামেন্টে শুরু থেকে শেষ অব্দি অপ্রতিরোধ্য গতিতেই খেলে গেছে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। তবে প্রথম গোলটি পেতে অপেক্ষা করতে হয়েছে ৩২তম মিনিট পর্যন্ত। গোল উৎসবের শুরুটা করেন আল আমিন সরকার।

তারপর ৪২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দলের অধিনায়ক রাকিবুল ইসলাম। বিরতির আগেই আরেকটি গোল পেয়ে যায় দল। এবার ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি তুলে নেন আল আমিন। দ্বিতীয়ার্ধে দলের পক্ষে চার নম্বর গোলটি করেন আল মিরাদ।

কিন্তু এরপরই স্রোতের বিপরীতে একটি গোল হজম করে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার গোলদাতা ইনসান মোহাম্মদ মিহরান। কিন্তু ৫৯তম মিনিটে ঠিকই আরও এগিয়ে যায় দল। এবার  পেনাল্টি থেকে গোল করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন আল আমিন। পরে আরেকটি গোল করেন তিনি। ৬৭তম মিনিটে নিশানা খুঁজে নেন ফরোয়ার্ড রাব্বী হোসেন। ৭০তম মিনিটে শেষ গোলটি করেন আল আমিন সরকার।

এর আগে টুর্নামেন্টে ভুটানকে ৫-২ গোলে উড়িয়ে শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু করে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। বাংলাদেশ তৃতীয় ম্যাচটি খেলবে ২৭ আগস্ট, প্রতিপক্ষ নেপাল।

দক্ষিণ এশিয়ার ৫টি দেশ খেলছে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে। লিগ লড়াই শেষে শীর্ষ দুই দল খেলবে ফাইনালে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র