বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে পারছে না জিম্বাবুয়ে



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ক্রিকেট থেকেই দূরে সরে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে

ক্রিকেট থেকেই দূরে সরে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে

  • Font increase
  • Font Decrease

ভয়াবহ দুঃসময়ে দাঁড়িয়ে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট। এরইমধ্যে জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিত করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। দেশটির বোর্ডে সরকারের রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের পরই এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। এ কারণেই থমকে গেল দেশটির ক্রিকেট।

নিরুপায় হয়ে এবার ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসতে অপারগতার কথা জানিয়েছেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট কর্তারা। সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠেয় এই টুর্নামেন্টে খেলার কথা ছিল জিম্বাবুয়ের।

গত শনিবার জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানায়-সামনের মৌসুমে ঘরোয়া টুর্নামেন্টই আয়োজনের সামর্থ্য নেই তাদের। একইভাবে অর্থনৈতিক কারণে নিকট ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক সিরিজেও খেলতে পারছে না তারা।

আরও পড়ুন- সদস্য পদ স্থগিতে ক্রিকেটের বাইরে জিম্বাবুয়ে

সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে লন্ডনে আইসিসির সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে জিম্বাবুয়ের সদস্য পদ স্থগিত করা হয়। এই নিষেধাজ্ঞার পর থমকে গেল জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট। তারা আইসিসি'র কোনো ইভেন্টে অংশ নিতে পারবে না। জাতীয় দল ও বয়সভিত্তিক দলের ক্রিকেট বন্ধ হয়ে গেল। এমন কী আইসিসির কাছ থেকে কোনো অর্থও পাবে না তারা।

এ অবস্থায় এক বিবৃতিতে ক্রিকেট জিম্বাবুয়ে জানিয়েছে, ‘আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় সব কিছুই আটকে গেল। আমাদের দেশে একটি বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের বাছাইপর্ব হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা এখন অনিশ্চিত হয়ে গেছে। খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তারা রয়েছেন চরম বিপাকে। তারা হয়ত কয়েক মাস এমনও হতে পারে আজীবন বেতন ও ম্যাচ ফি বিহীন থাকবে।’

আরও পড়ুন- আইসিসির সিদ্ধান্তে দিশেহারা জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা

হতাশ দেশটির তারকা অলরাউন্ডার সিকান্দার রাজা। দিন দুয়েক আগে তিনি বলেন, ‘জানি না আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হিসেবে আমরা কোথায় খেলব। ক্লাব ক্রিকেটে খেলব নাকি আমরা কোনো ক্রিকেটই খেলতে পারব না? আমরা কী ক্রিকেট সরঞ্জামাদি পুড়িয়ে ফেলে চাকরি খুঁজব?’

এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে এখন নির্বাচন হতে হবে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটে। আগামী তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন দিলে আর নির্বাচিত কমিটি বোর্ডের দায়িত্ব নিতে পারলেই স্থগিতাদেশ তুলে নিতে পারে আইসিসি।