জয়ে উড়ছে ফ্রান্স-ইংল্যান্ড

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বাছাই পর্বে দারুণ ছন্দে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স

বাছাই পর্বে দারুণ ছন্দে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স

  • Font increase
  • Font Decrease

২০২০ ইউরো বাছাইপর্বে আরেকটি জয় তুলে নিয়েছে ফ্রান্স। অনায়াসেই বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা উড়িয়ে দিয়েছে অ্যান্ডোরাকে। জিতেছে আরেক ফেভারিট ইংল্যান্ডও। গত রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালিস্টরা গোল উৎসবের ম্যাচে হারিয়েছে কসোভোকে।

বাছাই পর্বে ফরাসিদের টানা দ্বিতীয় জয়ের পথটা করে দেন কিংসলে কোমান। একইসঙ্গে গোল পেলেন ক্লেমোঁ লংলে ও বেন ইয়েদের। মঙ্গলবার রাতে প্যারিসে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচে ৩-০ গোলে জয় তুলে নেয় ফ্রান্স। এনিয়ে টানা তিন ম্যাচ জয় তুলে নিয়েছে ইউরোর গতবারের রানার্সআপরা।

খেলার ১৮তম মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন কোমান। এরপর  ৫২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে দেন লংলে। ইনজুরি সময়ে ফরাসিদের হয়ে আরেকটি গোল করেন বেন ইয়েদের।



এনিয়ে এবারের বাছাই পর্বে ছয় ম্যাচে পাঁচ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘এইচ’ গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। সমান পয়েন্ট তুরস্কেরও। ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে তিন নম্বরে আইসল্যান্ড। চারে আলবেনিয়া ( ৯ পয়েন্ট)।

এদিকে দুর্দান্ত লড়াই করেছে কসোভাে। যদিও ইংলিশরাই শেষ পর্যন্ত হাসিমুখে ছেড়েছে মাঠ। মঙ্গলবার রাতে সাউথ্যাম্পটনের সেন্ট ম্যারি’স স্টেডিয়ামে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে ৫-৩ গোলে জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড ফুটবল দল।

ইউরোপিয়ান ফুটবলে রেকর্ড টানা ১৫ ম্যাচ অপরাজিত থাকার হার দেখল কসোভো। ২০১৭ সালের অক্টোবরে রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে সব শেষ বার হার দেখছিল তারা।



তবে শুরুতে পিছিয়ে পড়েছিল তারাই। রক্ষণভাগের ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে দলকে কসোভোকে এগিয়ে দেন ভালোন বেরিসা। তবে রাহিম স্টার্লিং হেড থেকে পাওয়া গোলে সমতা ফেরায় স্বাগতিকরা। এরপর হ্যারি কেইনের গোলে এগিয়ে যায় দল।

৩৮তম মিনিটে ভয়ভোদার আত্মঘাতী গোলে আরও এগিয়ে যায় ইংলিশরা। ৪৪তম মিনিটে আন্তর্জাতিক ফুটবলে প্রথম গোল আদায় করে নেন ইংল্যান্ডের জেডন স্যানচো। এরপর আরেকটি গোল পেয়েছেন তিনি। এরপর ৫৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল পেয়েছেন কসোভোর ভেদাত মুরিকি (৩-৫)।  এরপর পেনাল্টি পেয়েছিল ইংল্যান্ডও। কিন্তু গোল আদায় করে নিতে পারেন নি কেইন।

এ অবস্থায় ৪ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ইংল্যান্ড। মন্টেনেগ্রোকে ৩-০ গোলে হারিয়ে এরপরই চেক রিপাবলিক। তিন নম্বরে থাকা কসোভো পাঁচ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট। ২ পয়েন্ট নিয়ে এরপরই মন্টেনেগ্রো।

আপনার মতামত লিখুন :