তুরানের ৩২ মাসের জেল, তবে...

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
তুরস্কের তারকা ফুটবলার আর্দা তুরান

তুরস্কের তারকা ফুটবলার আর্দা তুরান

  • Font increase
  • Font Decrease

শেষ অব্দি রেহাই পাচ্ছেন না আর্দা তুরান। প্রকাশ্যে বন্দুকচালনা, ইচ্ছাকৃত আঘাত আর বেআইনি অস্ত্র রাখার মাশুল গুনতে হচ্ছে তাকে। বার্সেলোনার এই মিডফিল্ডারকে ৩২ মাসের কারাদন্ড দিয়েছে তুরস্কের একটি আদালত।

যদিও ৩২ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে এখনই কারগারে যেতে হচ্ছে না। রায়ের বাস্তবায়ন হওয়ার সময়সীমা পিছিয়ে দিয়েছে আদালত। তুরস্ক জাতীয় দলের এই ফুটবলারের জেলে নাও যেতে হতে পারে। কারণ আদালত জানিয়েছে, আগামী ৫ বছরের মধ্যে তুরান ফের কোনও অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ে দোষী সাব্যস্ত হলেই জেলে ঢুকতে হবে।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলের একটি নাইটক্লাবে পপস্টার বার্কে সাহিনের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিলেন তুরান। ঘুষিতে সাহিনের নাকও ভেঙে দেন তিনি। এমন কী হাসপাতালে পৌঁছে প্রকাশ্যে বন্দুক চালিয়ে বসেন এই ফুটবলার।

তুরানকে তখনই প্রায় সাড়ে ৪ লক্ষ ইউএস ডলার জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে কোর্টে প্রসিকিউটররা তার ১২ বছরের কারাদন্ড দাবি করেন। যদিও আদালত এতোটা কঠোর হয়নি। এর কারণ ভুল বুঝতে পেরেছেন এই স্ট্রাইকার। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতিতে ঘটনার দায় স্বীকারসহ পরিবার ও ক্লাবের থেকে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি।

বার্সালোনার হয়ে ৫৫ ম্যাচ খেলে ১৫ গোল করেন তুরান। কাতালান ক্লাবটির হয়ে জিতেছেন ৪টি ট্রফি। এখন লোনে তুর্কি ক্লাবে খেলছেন। আর তুরস্কের হয়ে ১০০ ম্যাচ খেলে ১৭টি গোল করেছেন এই তারকা ফুটবলার।

আপনার মতামত লিখুন :