পাকিস্তান ক্রিকেট দলে ‘বিরিয়ানি’ নিষিদ্ধ!

স্পোর্টস এডিটর, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
পাকিস্তানের নতুন কোচ মিসবাহ-উল-হক

পাকিস্তানের নতুন কোচ মিসবাহ-উল-হক

  • Font increase
  • Font Decrease

মসলাদার বিরিয়ানি। আর রসে ভরা মিষ্টি-মন্ডা। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খুব পছন্দের রসনা বিলাস এগুলো। তবে পুরো দলের জন্য এমন সব খাবার দাবারের ওপর নিষেধাজ্ঞা এনেছেন পাকিস্তানের নতুন কোচ মিসবাহ-উল-হক। ঘরোয়া ক্রিকেট এবং জাতীয় দলের ক্যাম্পে ক্রিকেটারদের শরীরে মেদ জমাতে পারে এমন সব খাবারের তালিকা তৈরি করে তা নিষিদ্ধ করেছেন পাকিস্তানি কোচ।

ক্রিকেটারদের ফিটনেসকে বড় গুরুত্বের তালিকায় রেখেছেন নতুন কোচ। পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট কায়েদ-ই-আযম ট্রফির এক ম্যাচ দেখার সময় কোচ মিসবাহ ক্রিকেটারদের খাবারের মেনু নিয়ে নতুন নির্দেশনামা দেন।

যে প্রতিষ্ঠান ঘরোয়া ক্রিকেট এবং জাতীয় দলের ক্যাম্পে ক্রিকেটারদের জন্য খাবার দাওয়ার সরবরাহ করে তাদেরকে ডেকে এনে এই নির্দেশ দেন পাকিস্তান কোচ। জানিয়ে দেন-‘বিরিয়ানি ও তেল সর্বস্ব মাংস এবং মিষ্টি যেন খেলোয়াড়দের খাবারের ডিসে না থাকে। এর পরিবর্তে বারবিকিউ আইটেম ও পাস্তা এবং প্রচুর ফল ফলাদি যেন ক্রিকেটারদের খাবারের মেন্যুতে সরবরাহ করা হয়।’

ফিটনেসে বাধা হতে পারে এমন খাবার যেন ক্রিকেটাররা এড়িয়ে চলেন সেই নির্দেশনামাও দিয়েছেন মিসবাহ। যখন খেলা থাকে না, সেই অফসিজনে ক্রিকেটারা ডায়েট অনুযায়ী মেন্যু অনুসরণ সাধারণত করেন না। যা তাদের ফিটনেসে বড় সমস্যার তৈরি করে। পাকিস্তান কোচ তাই প্রত্যেক খেলোয়াড়কে তাদের ফিটনেস ঠিক এবং ডায়েট সুচি কায়দায় পালনের জন্য লগবুক রাখতে বলেছেন। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন- ফিটনেসে ঘাটতি থাকলে অবশ্য কোন ক্রিকেটার যদি ডায়েট সূচি যথানিয়মে পালন না করে তবে তাকে বেরিয়ে যাওয়ার রাস্তা দেখিয়ে দেয়া হবে।

৪৩ বছর বছর পর্যন্ত মিসবাহ-উল-হক দারুণ ফিটনেস নিয়ে টেস্ট ক্রিকেট খেলে গেছেন। এখন ৪৫ বছর বয়সেও পুরোদুস্তর ফিট পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক। কোচের কঠিন দায়িত্ব পাওয়ার পর পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে শৃঙ্খলায় রাখার শপথ নিয়েছেন তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :