বিরাট-আনুশকার প্রেমে নিষেধাজ্ঞা!



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা: ওয়ানডে সিরিজ শেষে সময়টা বেশ কেটে গেছে তাদের। বাঁধনহারা হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন বিরাট কোহলি আর আনুশকা। অনেকেই রসিকতা করে বলছিলেন, তৃতীয় হানিমুনে আছেন ভারতের এই তারকা দম্পতি।

কিন্তু সেই সুখের সময়ে আপাতত বিরতি পড়ছে। তাদের প্রেমে সাময়িক ‘নিষেধাজ্ঞা' দেওয়া হল। কারণ খোদ ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ভারত অধিনায়ক আর তার স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রীর প্রেম যেন সহ্য হচ্ছে না ভারতীয় ক্রিকেট কর্তাদের৷ আগস্টের ১ তারিখ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শুরু হবে টেস্ট লড়াই। তার আগে ক্রিকেটারদের স্ত্রী আর প্রেমিকাদের দূরে সরিয়ে দিচ্ছে বিসিসিআই৷ সিরিজের প্রথম তিন টেস্ট শেষ না হওয়া পর্যন্ত ক্রিকেটারদের সঙ্গে থাকতে পারবে না তাদের জীবনসঙ্গীনিরা৷ খেলোয়াড়দের মনোসংযোগে যাতে চিড় না ধরে এজন্য দেওয়া হল এই নিষেধাজ্ঞা৷

এরই পথ ধরে এবার ইংল্যান্ড ছাড়তে হবে আনুশকাকে। বিলাতে স্বামী বিরাটের সঙ্গে দারুণ কিছু মুহূর্ত কাটিয়েছেন তিনি। এবার দেশে ফিরে বলিউডের সিনেমা নিয়েই ব্যস্ত হয়ে উঠতে হবে তাকে।

মনে রাখার মতো সময় কাটিয়ে ভারতে ফিরবেন আনুশকা। ইংল্যান্ডের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজ শেষ হতেই কোহলির সঙ্গে সময় কেটেছে তার। সপ্তাহখানেকেরও বেশি সময় ধরে লন্ডনে চলেছে তাদের মধুচন্দ্রিমা। কখনো দু'জন বেরিয়ে পড়েছেন শপিংয়ে। আবার কখনোবা ট্রেনে করে চলে গেছে ইংল্যান্ডের অন্যকোনো শহরে। রেস্তোরাঁতে সেরেছেন ডিনার। যার স্থিরচিত্র নিজেরাই শেয়ার করেছেন সোশাল নেটওয়ার্ক ফেসবুক আর ইনস্ট্রাগ্রামে।

বিসিসিআইয়ের নতুন নিয়মের কথা শুনেছেন ক্রিকেটাররা। তাইতো স্ত্রীদের দেশে ফেরার টিকিট কনফার্ম করেছেন বিরাট, শিখর ধাওয়ানরা। এমন ঘটনা অবশ্য আগেও দেখা গেছে। ক্রিকেটারদের বাজে পারফরম্যান্সের জন্য স্ত্রী কিংবা বান্ধবীদের দিকে আঙুল উঠেছে। এমনটা যাতে না হয়, এ কারণেই বোর্ড কঠোর হয়ে এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।