ব্যর্থতার দায় নিয়ে ক্ষমা চাইলেন রুবেল

সেন্ট্রাল ডেস্ক ২

  • Font increase
  • Font Decrease
নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ভারতের কাছে বাংলাদেশের হেরে যাওয়ায় অভিযোগের তীরটা রুবেল হোসেনের দিকেই এসেছে। ম্যাচের ১৯তম ওভারে খরুচে রুবেল দিয়েছিলেন ২২ রান। দুই ছয় ও সমান সংখ্যক চারের এই এক ওভারেই এলোমেলো হয়ে গেছে বাংলাদেশ শিবির। যদিও প্রথম তিন ওভার রুবেল দারুণ বল করেছেন। তাই ম্যাচের এমন উত্তেজনাকর শেষ সময়ে অধিনায়ক সাকিব ভরসা রেখেছিলেন রুবেলের প্রতি। স্নায়ুচাপের কারণেই হয়তো ঠিকমতো বল করতে পারেননি বাংলাদেশের এই নির্ভরশীল পেসার। যে ম্যাচে নায়ক হওয়ার কথা ছিল, সে ম্যাচে বেশি রান দিয়ে রাতারাতি ভিলেন হয়ে গেলেন এই পেসার। নিজেও বুঝতে পেরেছেন, দলের পরাজয়ে দায়টা তার ওপরই বর্তায়। দায়বদ্ধতা থেকে নিজের ফেসবুক পেজে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন এই তারকা। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘ম্যাচ শেষ হওয়ার পর থেকেই খুব খারাপ লাগছে। সত্যি বলতে, আমি কখনই ভাবিনি আমার কারণে বাংলাদেশ দল জয়ের এত কাছে এসেও ম্যাচ থেকে এভাবে ছিটকে যাবে। সবার কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমাকে ক্ষমা করে দেবেন সবাই।’ ম্যাচ হারে রুবেল হোসেনের দিকে অভিযোগের তীর ছুড়ে গেলেও সাকিব অবশ্য রুবেলকে দোষারোপ করতে নারাজ। দলের অধিনায়ক মনে করেন, ম্যাচে এমনটা ঘটতেই পারে। এ ব্যাপারে সাকিব বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি, রুবেল কিন্তু খুব মিস করেনি। যে জায়গাটায় বল করার কথা ছিল, অল্পের জন্য মিস করেছে। এ রকম হতেই পারে। দিনেশ কার্তিক অসাধারণ ব্যাট করেছে। ওই ওভারে প্রথম দুই বলে ১০ রান দেওয়ার পর হয়তো রুবেল একটু নার্ভাস হয়ে পড়েছিল। এটা যে কারোই হতে পারে। তার পরও শেষের ওভারে সে আমাদের সেরাদের একজন।’ বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার আরো বলেন, ‘আমি ভাবছিলাম যে রুবেল বাজে বল করলেও হয়তো ১৫ রান দেবে। শেষ ওভারে সৌম্যর জন্য ২০ রান থাকবে, হয়তো বেশ আত্মবিশ্বাসী থাকবে। এ জন্যই রুবেলকে ১৯তম ওভারে এনেছিলাম। কিন্তু তা হয়নি। তবে পরে আবার এ রকম পরিস্থিতি হলে আমি রুবেলের হাতেই বল দেবো।’

আপনার মতামত লিখুন :