আর্জেন্টিনার জার্সিতে মেসির ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত

লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ কি?

এই প্রশ্নের উত্তর এখন কারোর জানা নেই। মেসি নিজেও জানেন না। এমনকি আর্জেন্টিনার নতুন কোচ লিওনের স্কালোনির কাছেও এই প্রশ্নের সুনির্দিষ্ট কোন জবাব নেই।

তবে কি মেসি আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে তার শেষ ম্যাচটা খেলে ফেলেছেন? ঘুরে ফিরে পুরানো প্রশ্নটা ফের আসছে। সামনের মাসে গুয়েতেমালা এবং কলম্বিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। এই দুই ম্যাচে খেলছেন না মেসি। তাকে ছাড়াই দল ঘোষণা করেছেন আর্জেন্টিনার নতুন কোচ। দলে নেই আরও বেশ কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড়। সার্জিও আগুয়েরো, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, গনজালো হিগুইন এবং নিকোলাস ওটামেন্ডিকে  দলে রাখেননি স্কালোনি। সহজ হিসেব হল আর্জেন্টিনার ভবিষ্যৎ দলে এই সিনিয়রদের আর কোন জায়গা দিতে রাজি নন নতুন কোচ। তবে মেসির ব্যাপারটা একটু আলাদা। এই দল ঘোষণার আগে মেসির সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেছেন স্কালোনি। সেই বৈঠকেই মেসি নিজেই তাকে এই দুই ম্যাচে দলে না রাখার জন্য অনুরোধ করেন। কোচ সেই অনুরোধ রেখেছেন। কিন্তু প্রশ্ন হল আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে মেসির সামনের দিনের পরিকল্পনা কি?

তিনি কি সামনের সময়টায় ফিরবেন? নাকি এমনিভাবে নিজের ছুটি আরও বাড়িয়ে নেবেন? বলাবলি হচ্ছে আর্জেন্টিনার হয়ে মেসি সম্ভবত আর ফিরবেন না! এর আগেও মেসি আর্জেন্টিনা জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ২০১৬ সালে কোপা আমেরিকার ফাইনালে হারের পর মেসি থই থই আবেগে মথিত হয়ে আর্জেন্টিনার জার্সি তুলে রাখার ঘোষণা দিয়ে বসেন। ২০১৪ সালে বিশ্বকাপে ব্যর্থতা। দুই বছর পরে কোপা আমেরিকায় ফাইনালে হার। মেসি ধরেই নিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার হয়ে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি নিয়ে উল্লাসে ভাসার সৌভাগ্য তার কোনদিনই হবে না। এমনসব দুঃখ নিয়েই ২০১৬ সালে আর্জেন্টিনা জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে বসেছিলেন তিনি। তবে নিজের সেই সিদ্ধান্তে স্থির থাকতে পারেননি মেসি। ম্যারাডোনাসহ পুরো আর্জেন্টিনার ফুটবল প্রেমিদের অনুরোধে অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন তিনি। ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে খেলেন। এবং বাছাই পর্বে খাদের কিনারায় থাকা আর্জেন্টিনাকে মুলত মেসিই রক্ষা করেন। ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা কোনমতে গ্রুপ পর্বের বাধা টপকাতে পারলেও দ্বিতীয় পর্বেই বিদায় নেয়। ফ্রান্সের কাছে ৪-৩ গোলের হারে আরেকবার মেসির বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ হয়ে যায়।

চারবছর পরের সামনের বিশ্বকাপের সময় মেসির বয়স হবে ৩৫ বছর। জাতীয় দলে খেলার জন্য এই বয়সটা যথাযথ হবে কিনা- সেটাও বড় প্রশ্ন। এসব প্রসঙ্গে আর্জেন্টিনার বর্তমান কোচ স্কালোনির সাফ জবাব-‘ সামনের মাসের প্রীতি ম্যাচের জন্য দল ঘোষণার আগে আমি মেসির সঙ্গে কথাবার্তা বলেছি। তার সঙ্গে সেই আলোচনার প্রেক্ষিতেই আমি এই দল ঘোষণা করেছি। তবে লম্বা মেয়াদে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য মেসির ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি, সেই প্রশ্নের উত্তর আমার জানা নেই। এই অজানা ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা অবশ্য কোন আলোচনাও করিনি।’

স্কালোনি বলছিলেন-আমরা সবাই জানি মেসি আমাদের জন্য কি? তার সঙ্গে আমার চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে। হ্যাঁ মানছি এবারের দলে সে নেই। সামনের দিনে থাকবে কিনা, সেটা দেখা যাবে। এই দুই ম্যাচের পর তো সামনের সময়টায় আমাদের আরো ম্যাচ আছে। দেখা যাক।’

অর্থাৎ স্কালোনি নিজেও মেসির বিষয়ে এখন নিশ্চিত নন!

আপনার মতামত লিখুন :