গুজব সৃষ্টিকারী ১২ শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার জন্য গুজব সৃষ্টিকারী ১২ জন শিবিরের কর্মীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ।

সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বিষয়টি জানান উপপুলিশ কমিশনার মাসুদুর রহমান।

মাসুদুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতরা হলেন, তারেক আজিজ, তারেক, জাহাঙ্গীর আলম, মোজাহিদুল ইসলাম, আল আমীন, জহিরুল ইসলাম, বোরহান উদ্দিন, ইফতেখার আলম, মেহেদী হাসান রাজিব, মাহফুজ, সাইফুল্লাহ ও রায়হানুল আবেদিন।

এদিকে গ্রেফতারের বিষয়ে পুলিশ দাবি করেন, গত ৯ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তেজকুনীপাড়া এলাকা হতে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের সময় তাদের হেফাজত হতে বিভিন্ন স্কুল অ্যান্ড কলেজের মনোগ্রাম সম্বলিত ১২ সেট ড্রেস, ১৩ টি ফিতাসহ আইডি কার্ড (উল্লিখিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোন মিল নেই), হ্যান্ডমাইক, ম্যাগনিফাই গ্লাস, হাতুড়ি, স্ক্রু-ড্রাইভার, ৩টি ল্যাপটপ, ইসলামী ছাত্র শিবিরের কর্ম পদ্ধতি ও বিভিন্ন ফর্ম, শিবির কর্তৃক প্রকাশিত কিশোর কন্ঠসহ বিভিন্ন ইসলামী বই, বিভিন্ন কার্যক্রমের বিষয় লেখা ডায়েরি ও ফেসবুকে পোস্টকৃত বিভিন্ন ভিডিওসহ স্থির ছবি উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিকভাবে তাদের ফেসবুক ওয়ালে থেকে বিভিন্ন পোস্ট আমলে নেওয়া হয়েছে। যেমন জিগাতলাই কি হয়েছে স্টুডেন্টের মুখ থেকে শুনুন, ৪ জন মারা গেছে, ৪ জন ধর্ষণ, শিক্ষা মন্ত্রীর গাড়ির লাইসেন্স নাই, গাড়ি ভিতর মুড়ি, পুলিশ ঘুষ খায়, মন্ত্রী এমপি সবাই চোর।

পরে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা গত ২৯ তারিখ শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ২ জন শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায়, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি এবং চলমান আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার জন্য ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত বিভিন্ন উসকানিমূলক লেখা/পোস্ট/ফটো/ভিডিও দ্বারা গুজব ছড়ায়।

এ সংক্রান্তে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় মামলা রুজু হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :