মুক্তির আনন্দে ভাসল তারা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সিলেট: আনন্দ বইছে ১৪২ পরিবারে। গত দুইদিনে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছে ১৪২ কয়েদি। এদের মধ্যে নারী কয়েদিও রয়েছে ১৪ জন। তারা বিভিন্ন লঘু অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে সাজা ভোগ করছিল।

দেশের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো কারাগার থেকে এক সঙ্গে ১৪২ কয়েদিকে মুক্তি দেয়া হল। এর মধ্যে রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ৭৩ জন এবং সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ৬৯ জনকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার আব্দুল জলিল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মানবিক দিক বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নির্দেশনায় রোববার ১৪৯ জন কয়েদিকে সিলেটের বিভিন্ন আদালতে হাজির করা হয়। এদের বেশিরভাগই মেট্রোআইন চুরি, ছিনতাই, পতিতাবৃত্তি প্রভৃতি লঘু অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে সর্বনিম্ন ৬ মাস থেকে সর্বোচ্চ দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত ছিলেন।

আদালতে তারা দোষ স্বীকার করে ভবিষ্যতে অপরাধ কর্মকাণ্ড থেকে দূরে থাকার অঙ্গীকার করলে আদালত ১৪২ জনকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেন। এদের মধ্যে ১০৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে জামিন এবং ৩৬ জন মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সম্প্রতি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার ঘুরে যান সরকারের স্বরাষ্ট্র সচিব (সুরক্ষা ও সেবা) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ও আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক। পর্যায়ক্রমে দেশের অন্যান্য কারাগার থেকেও লঘু অপরাধে সাজাপ্রাপ্তদের মুক্তি দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

আপনার মতামত লিখুন :