৯ কোটি যাত্রী পরিবহনে সক্ষম রেল: রেলমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সংসদ অধিবেশন।

সংসদ অধিবেশন।

  • Font increase
  • Font Decrease

বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়ের ৯ কোটি যাত্রী পরিবহনের সক্ষমতা রয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মো: মুজিবুল হক।

মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদে নিজাম উদ্দিন হাজারীর (ফেনী-২) এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। এরআগে বিকাল সোয়া ৫টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলে ঢাকা থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ১০টি, ঢাকা-সিলেট রুটে আটটি, ঢাকা-নোয়াখালী রুটে দুইটি, ঢাকা-কিশোরগঞ্চ রুটে ছয়টি, ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ রুটে চারটি, ঢাকা-ময়মনসিংহ-মোহনগঞ্জ রুটে চারটি, ঢাকা-নারায়নগঞ্জ রুটে লোকাল ২৬টি এবং ঢাকা-তারাকান্দি রুটে চারটিসহ মোট ৩৮টি আন্ত:নগর এবং ঢাকা-নারায়নগঞ্জ রুটে ২৬টি লোকালট্রেন চলাচল করছে।

পশ্চিমাঞ্চলে ঢাকা থেকে ঢাকা-খুলনা রুটে চারটি, ঢাকা-সিরাজগঞ্জ বাজার রুটে দুইটি, ঢাকা-রাজশহী রুটে ছয়টি, ঢাকা-চিলাহাটি রুটে দুইটি, ঢাকা-কলকাতা রুটে দুইটি, ঢাকা-লালমনিরহাট রুটে দুইটি, ঢাকা-দিনাজপুর রুটে চারটি, ঢাকা-রংপুর রুটে দুইটিসহ মোট ২৪টি আন্ত:নগর এবং ঢাকা-ঈশ্বরদী রুটে একটি লোকাল ট্রেন চলাচল করছে।

বেগম সানজিদা খানমের (মহিলা আসন-২৬) এক প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে সর্বমোট ৪৬০টি স্টেশন আছে। এরমধ্যে বর্তমানে ৯৬টি স্টেশন বন্ধ রয়েছে। বন্ধ স্টেশনসময়হ চালু করার উদ্দেশ্যে স্টেশনগুলোর জন্য অত্যাবশ্যকীয় জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।

মুজিবুল হক বলেন, জনবল নিয়োগ সম্পন্ন করে বন্ধ স্টেশন চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা একদিনে ৬০টি বন্ধ স্টেশন চালু করেছি। অবশিষ্ট স্টেশনগুলো জনবল নিয়োগ সাপেক্ষে শীঘ্রই চালু করা ইচ্ছা রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :