সিরাজগঞ্জে ধর্ষণের পর শিশু হত্যা, ৭ জনের যাবজ্জীবন



সেন্ট্রাল ডেস্ক ২

  • Font increase
  • Font Decrease
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ১১ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (১ম) আদালতের বিচারক মো. রফিকুল ইসলাম এ রায় দেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলো- শাহজাদপুর উপজেলার মশিপুর গ্রামের আব্দুল হাকিম (৪৬), হাছেন আলী (৩৮),  লোকমান (৫৩), হাসান আলী (৩৩), একই উপজেলার কায়েমপুর গ্রামের মো. রানা (৩৩), নবির হোসেন (৩৬) ও বাতিয়ারপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৩৩)। এদের মধ্যে রফিকুল পলাতক। যাবজ্জীবনের পাশাপাশি প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয়মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন, সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) আনোয়ার পারভেজ লিমন। মামলা চলাকালে নবির মোল্লা নামে এক আসামি কারাগারে মারা যান। মামলার বরাত দিয়ে এপিপি জানান, ২০১০ সালের ১৬ জুলাই বিকালে উপজেলার কায়েমপুর গ্রামের সাহেব আলীর ১১ বছরের মেয়ে খুশি খাতুন পাশের মশিপুর গ্রামের আব্দুল হাকিমের বাড়ি তার মেয়ে আঁখি খাতুনের (৯) সঙ্গে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন বিকালে কায়েমপুর এলাকার একটি পাট ক্ষেত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই মেয়েটির মা সাগরি খাতুন বাদী হয়ে আব্দুল হাকিমকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন। তদন্ত শেষে আটজনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।