বিষপানে স্কুলছাত্রীসহ হবিগঞ্জে তিনজনের আত্মহত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গে ও আজমিরীগঞ্জে বিষপানে এক স্কুলছাত্রীসহ তিনজন আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের চিকিৎসক ক্রিলোক কান্তি।

জানা যায়, বানিয়াচং উপজেলার মন্দরি গ্রামের স্থানীয় একটি স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী রুখসানা আক্তার মঙ্গলবার দুপুরে বিষপান করেন। পরে রোখসানাকে তার পরিবারের লোকজন হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধায় তার মৃত্যু হয়।

রোখসানার পিতা রাসেল মিয়া জানান, রোখসানা দুই দিন ধরে স্কুলে না যাওয়ায় তার মা গালিগালাজ করেন। এতে সে রাগে ও অভিমানে ঘরে থাকা বিষ পান করে আত্মহত্যা করে।

এদিকে একই উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামে জিয়া উদ্দিন নামে এক যুকব শ্বশুর বাড়িতে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। তিনি মৌলভীবাজার জেলার বাসিন্দা শিমুল মিয়ার ছেলে।

তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন জানান, দুই বছর আগে জিয়া উদ্দিন রড়ইউড়ি গ্রামের রুনার সাথে পরিচয় হয়। পরে তিনি রুনাকে বিয়ে করে রড়ইউড়ি গ্রামে ঘর জামাই থেকে যান।

মঙ্গলবার সকালে জিয়া পরিবারের সকলের অঘোচরে বিষপান করেন। বিষয়টি আঁচ করতে পেরে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

অপর দিকে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামে সুজিনা বেগম (২৫) নামে তিন সন্তানের জননী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন। সে ঐ গ্রামের এনামূল হকের স্ত্রী।

পরিবারের লোকজন জানায়, মঙ্গলবার সকালে সুজিনা বিষপান করেন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

আপনার মতামত লিখুন :