‘চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই, শুধু সেবা করতে চাই’

রেজা-উদ্-দৌলাহ প্রধান ও উবায়দুল হক
ময়মনসিংহ সার্কিট হাউস মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ময়মনসিংহ সার্কিট হাউস মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহ সার্কিট হাউস থেকে: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমার কোন চাওয়া পাওয়া নেই। আমি শুধু আপনাদের সেবা করতে চাই। যাওয়ার আগে শুধু এটুকুই বলে যেতে চাই, 'রিক্ত আমি, নিঃস্ব আমি দেওয়ার কিছু নেই, আছে শুধু ভালোবাসা দিয়ে গেলাম তাই।'

শুক্রবার(২ নভেম্বর) ময়মনসিংহ সার্কিট হাউস মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে তিনি ময়মনসিংহ বিভাগে ১৯৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন/ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

ময়মনসিংহকে নতুন বিভাগ করে আজ আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমি ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করেছি। এই বিভাগের সার্বিক উন্নয়নে আপনাদের জন্য আমি উপহার নিয়ে এসেছি। কিছুক্ষণ আগে সেটি উদ্বোধন করেছি। এসব উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এ এলাকায় কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে, বেকার যুবকেরা চাকরি পাবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/02/1541161155198.jpg

বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলের ময়মনসিংহ অঞ্চলে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উপর হওয়া অত্যাচারের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি জামায়াত জোট আমলে এ অঞ্চলে মানুষের উপর অকথ্য নির্যাতন ও অত্যাচার করেছে। অগণিত মানুষকে হত্যা করেছে। একাত্তরের মত নারীদের ধর্ষণ করা হয়েছিল। আওয়ামী লীগ কাউকে হত্যা করে না, কারো উপর অত্যাচার করে না। আওয়ামী লীগ করে উন্নয়ন, আওয়ামী লীগ করে মানুষের কল্যাণ।

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, এই ১০ বছরে বাংলাদেশ দারিদ্র যেখানে ৪০ ভাগ ছিল ২১ ভাগে নেমে এসেছে। আমি আপনাদের সহযোগিতা চাই। আগের মত আপনরা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আমাদেরকে জয়ী করবেন যেন আমরা দারিদ্রসীমা আরো কমিয়ে ৪/৫ শতাংশে নামিয়ে আনতে পারি।

'আমি আপনাদের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চাই। আপনার হাত তুলে আমাকে দেখান।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/02/1541161204531.jpg

এদিকে বঙ্গবন্ধু কন্যাকে বরণ করে নিতে কয়েক সপ্তাহ জুরে সাজসাজ রব গোটা শহরে। ঝকঝকে-তকতকে কর সাজানো হয় পুরো নগরীকে। জনসভায় যোগ দিতে উজ্জিবিত দলীয় নেতাকর্মীরা শুক্রবার সকাল থেকে বাস, ভ্যান, ট্রাক, ইজিবাইকে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে জনসভাস্থলে উপস্থিত হয়। সভা শুরুর অনেক আগেই কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে ওঠে জনসভাস্থল।

জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল ও মহানগর আ'লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলমের সঞ্চালনায় জন সমাবেশে বক্তব্য দেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ  মতিউর রহমান, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা.দীপুমণি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক ইকরামুল হক টিটু, ফুলবাড়িয়া আসনের সাংসদ মোসলেম উদ্দিন, গৌরীপুরের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন, গফরগাঁও আসনের সাংসদ ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, ফুলপুর-তারাকান্দা আসনের সাংসদ শরিফ আহমেদ প্রমুখ