গুরুতর অসুস্থ বীর প্রতীক তারামন বিবি

তারামন বিবি। ছবি: বার্তা২৪.কম

মাত্র ১৪ বছর বয়সে পাক হানাদার বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ লড়াইয়ের বলিষ্ঠ সাহস দেখিয়েছিলেন তারামন বিবি। পরবর্তীতে এই নারী মুক্তিযোদ্ধা এরই স্বীকৃতিস্বরূপ ভূষিত হন বীরপ্রতীক খেতাবে।

বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ বীর সেনানী সেই তারামন বিবির জীবন এখন চরম সংকটাপন্ন। শ্বাসকষ্ট, ফুসফুসে সমস্যা, ডায়াবেটিসসহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত তিনি। তার জীবন নিয়ে চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছে পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে কুড়িগ্রামের রাজীবপুর কাচারিপাড়ার নিজ বাড়ি থেকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তারামন বিবিকে প্রথমে ময়মনসিংহ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ( সিএমএইচ) নিয়ে আসা হয়। এরপর তার অবস্থার অবনতি হলে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সন্ধ্যায় তারামন বিবি বীর প্রতীকের ছেলে আবু তাহের বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘মায়ের শরীর নিয়ে আমরা চরম উৎকণ্ঠিত। মায়ের একটি ফুসফুস অনেক আগে থেকেই নষ্ট এবং আরেকটিও প্রায় অকার্যকর। তার শ্বাসকষ্ট অনেক বেড়ে গেছে।’

তিনি জানান, ২০১৪ সালের দিকে তার মায়ের ফুসফুসের সমস্যা ধরা পড়ে। এরপর প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করানো হলেও অবস্থার খুব একটা উন্নতি হয়নি। ২০১৬ সালে ফের গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। সে সময় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল ও ঢাকার সিএমএইচ থেকে চিকিৎসা করিয়ে বাড়ি ফিরলেও শ্বাসকষ্টের সমস্যা থেকে মুক্তি মেলেনি তার।

মাকে সুস্থ করে তুলতে দেশের বাইরে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারামন বিবি বীর প্রতীকের ছেলে আবু তাহের।

জাতীয় এর আরও খবর