৮ ফুড ভ্যান পেল সিলেটের ২৪ হিজড়া

৮ ফুড ভ্যান পেল সিলেটের ২৪ হিজড়া। ছবি: বার্তা২৪.কম

হিজড়া সম্প্রদায়কে মূল স্রোতধারায় ফিরিয়ে আনতে এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের এক কর্মকর্তা। তার নাম জাবেদুর রহমান। তিনি প্রাথমিকভাবে তার বন্ধু-বান্ধবকে নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে ২৪ জন হিজড়ার পাশে দাঁড়িয়েছেন।

সম্প্রতি হিজড়াদের ৮টি বিশেষায়িত ফুড ভ্যান প্রদান করেছেন তিনি। প্রতি ৩ জন হিজড়া একটি করে ভ্যান গাড়ির মাধ্যমে চটপটি, ফুচকাসহ বিভিন্ন ধরনের খাবার বিক্রি করে নিজেদের স্বাবলম্বী করতে পারবেন। ভ্যান গাড়ির সঙ্গে তাদেরকে প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রও দেয়া হয়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার জাবেদুর রহমানের মতে, হিজড়ারাও মানুষ। তারা সমাজে অবহেলিত। তাদের প্রতি প্রায় সকলেরই রয়েছে ‘নাক সিটকানো’ মনোভাব। যার ফলে হিজড়ারা সমাজের মূলধারা থেকে অনেকটাই বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। জড়িয়ে পড়ে নানা অপরাধের সঙ্গে। এই বিচ্ছিন্ন হিজড়া সম্প্রদায়কে সমাজের মূল স্রোতধারায় নিয়ে আসতে তাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস।

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হায়াতুল ইসলাম আখঞ্জি জানান, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে একটি ভ্যান নিয়ে বসার সুযোগ করে দেয়া হবে। পাশাপাশি হিজড়াদের প্রতি ছাত্রীদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের সচেতনতা সৃষ্টির প্রয়াস চালানো হবে। তাদেরকে অবহেলা নয়, সহযোগিতার মাধ্যমে পুনর্বাসিত করতে হবে।

পুনর্বাসনের সুযোগ পেয়ে হিজড়া সম্প্রদায়ের মানুষরাও খুশি। হিজড়া রিক্তা শিকদার বলেন, ‘হিজড়ারা অবহেলিত, নিগৃহীত। এ জন্য আমরা অনেক সময় অপরাধে জড়িয়ে পড়ি। পুনর্বাসনের সুযোগ পাওয়ায় আমরা আনন্দিত। এই পুনর্বাসনের উদ্যোগকে মডেল হিসেবে পরিণত করতে চেষ্টা করব আমরা।’

উল্লেখ্য, সিলেট জেলায় ২২৫ জন হিজড়া রয়েছেন। এর মধ্যে নগরীতে রয়েছে ৭৫ জন হিজড়া।

জাতীয় এর আরও খবর

//election count down