টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত বগুড়ার জনজীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত বগুড়ার জনজীবন। ছবি: বার্তা২৪.কম

টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত বগুড়ার জনজীবন। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে বগুড়ার জনজীবন। নির্বাচনী প্রচারণায় পড়েছে ভাটা। ঘর থেকে মানুষ বের হতে পারছে না। বেশি বেকায়দায় পড়েছে খেটে খাওয়া দিন মজুর শ্রেণির মানুষরা। মাঠের ফসলও হুমকির মুখে পড়েছে টানা বৃষ্টিতে।

সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির কারণে রাতের মধ্যেই বিভিন্ন প্রার্থীর নির্বাচনী পোস্টার ভিজে খুলে পড়েছে। মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) সকাল থেকেও বৃষ্টির কারণে নতুন করে কোনো নির্বাচনী পোস্টার লাগানো যাচ্ছে না। প্রচার মাইক এবং গণসংযোগ বন্ধ রয়েছে বৃষ্টির কারণে।

এদিকে এই বৃষ্টির মধ্যে বগুড়া শহরের দুইটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩য় শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারি জিলা স্কুল এবং সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পরীক্ষার্থী ছিল প্রায় চার হাজার। এই ক্ষুদে পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকরা মঙ্গলবার সকাল ৯টার মধ্যে বৃষ্টিতে ভিজে সন্তানদের নিয়ে এসেছিল পরীক্ষা কেন্দ্রে। সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে সন্তানরা পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করার পর অভিভাবকরা স্কুলের সামনে বৃষ্টির মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিল দুইঘণ্টা।

এদিকে টানা বৃষ্টিতে মাঠের ফসলের মধ্যে আলুর ক্ষতি হবে সবচেয়ে বেশি। জমিতে পানি জমে যাওয়ার কারণে গাছ পচে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে বলে জানান শিবগঞ্জের কৃষক মামুন।

বগুড়া সদরের সাবগ্রাম এলাকার কৃষক খয়বর আলী জানান, তিনি তিন বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছেন। কয়েকদিন আগেই সেচ দিয়েছেন। এর মধ্যে সোমবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিতে এখন জমিতে পানি আটকে গেছে। আরও বৃষ্টি হলে লাগানো আলু ঘরে তোলা অসম্ভব হয়ে পড়বে।

কৃষিবিদ আমিনুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে জানান, টানা বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে আলু, সরিষা ছাড়াও বিভিন্ন রবি শস্যের ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। জমিতে পানি আটকে থাকার কারণে গাছ মরে যাওয়া ছাড়াও আলুতে পচন রোগ দেখা দিতে পারে। তবে এই বৃষ্টি গমের জন্য উপকারে আসবে।

বগুড়া আবহাওয়া অফিসের টেলিপ্রিন্টার সুপারভাইজার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ২ দশমিক ৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হয়েছে ১ দশমিক ৬ মিলিমিটার। বৃষ্টিপাত আরও ২-১ দিন অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :