পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষার ফল সোমবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা, বার্তা ২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

২০১৮ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও প্রাথমিক ইবতেদায়ি এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ হবে আজ। 

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের সার সংক্ষেপ তুলে দেবেন।

এরপর দুপুর ১২টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল তুলে ধরবেন শিক্ষামন্ত্রী ‍নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এছাড়া দুপুর ১টায় নিজ মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে করে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল প্রকাশ করবেন গণশিক্ষা মন্ত্রী ফিজার।

ফলাফল ঘোষণা করার পরপরই ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠিয়ে ফলাফল জানতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও প্রাথমিক ইবতেদায়ির ফলাফল www.dpe.gov.bdhttp://dperesults.teletalk.com.bd এই দুইটি লিংকে গিয়ে শিক্ষার্থীরা ফলাফল জানতে পারবেন।

এছাড়া মোবাইল থেকেও এসএমএস পাঠিয়ে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ির ফলাফল জানা যাবে। এক্ষেত্রে মোবাইলের এসএমএস অপশনে গিয়ে DPE লিখে স্পেস দিয়ে শিক্ষার্থীর আইডি লিখে স্পেস দিয়ে বর্ষ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

আর ইবতেদায়ির ফলাফলের জন্য EBT স্পেস শিক্ষার্থীর আইডি নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বর্ষ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করলে ফিরতি এসএমএসেই ফলাফল জানতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, www.educationboardresults.gov.bd এই লিংকে গিয়েও জেএসসি ও জেডিসির শিক্ষার্থীরা ফলাফল জানতে পারবেন।

এছাড়াও মোবাইলে ফল পেতে JSC/JDC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ড লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বর্ষ লিখে ১৬২২২ নাম্বারে এসএমএস করলেও ফলাফল জানা যাবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এর আগে গত বছর ৩০ ডিসেম্বর পিইসি, ইবতেদায়ি, জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষাগুলোর ফল প্রকাশ করা হয়েছিল। তবে আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন থাকায় এ বছর এসব পরীক্ষার ফল ঘোষণার তারিখ এগিয়ে আনা হয়েছে। এ বিষয়ে আগে থেকেই সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

উল্লেখ, গত ১ থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত সারাদেশে একযোগে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।

এছাড়া বিগত ১৮ থেকে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা। সারাদেশে এ পরীক্ষায় অংশ নেয় ৩০ লাখ ৯৫ হাজার ১২৩ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থী।

আপনার মতামত লিখুন :