Barta24

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অসত্য

আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অসত্য
আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অসত্য, ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক(বাজেট) ডা. আনিসুর রহমান নিজেকে নির্দোষ দাবি করে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগকে অসত্য দাবি করেছেন। 

সোমবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় দুদক কার্যালয়ে আসার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করা হয়। দুদকের উপ-পরিচালক ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা সামছুল আলম জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। প্রায় তিন ঘণ্টাব্যাপী জিজ্ঞাসাবাদের পর দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি জিজ্ঞাসাবাদ কক্ষ থেকে বের হয়ে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।

তিনি আরো বলেন, তাকে বাজেট এবং টেন্ডার জালিয়াতি সং ক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় কিন্তু তিনি এই ধরনের কাজ গুলোর সাথে সংশ্লিষ্ট না বলে জানান গণমাধ্যমের কাছে।

এর আগে দুদকের উপ-পরিচালক মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সামসুল আলম বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমানকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে শারীরিক অসুস্থতার কারণে টেলিফোনে দু'দিন সময় চেয়েছেন পরিচালক ডা কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন। আর ১৫ দিনের সময় চেয়ে আবেদন করেছেন লাইন ডিরেক্টর ডা আব্দুর রশিদ।

দুদকের অভিযোগে বলা হয়েছে- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে সিন্ডিকেট করে সীমাহীন দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে বিদেশে অর্থ পাচার ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত অর্জনের অভিযোগ রয়েছে ।

 

আপনার মতামত লিখুন :

ভুয়া সিল-প্যাড রুখতে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার জিডি

ভুয়া সিল-প্যাড রুখতে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার জিডি
ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও তার নামে ভুয়া চিঠিপত্র।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার ভুয়া সিল-প্যাড ব্যবহার করে জা‌লিয়া‌তি কর‌েছে এক‌টি প্রতারক চক্র।

এ ভুয়া চক্র থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে বুধবার (১৭ জুলাই) রাজধানীর শের-ই-বাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তিনি। জিডি নং: ৯৮১।

জিডিতে তিনি জানান, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত আমার সিল-প্যাড ব্যবহার করে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান বরাবর কোন ধরনের পত্র, সুপারিশ বা নির্দেশনা প্রদান করি নাই। অথচ একটি জালিয়াতচক্র আমার নামে ভুয়া চিঠিপত্র বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানে প্রেরণ করেছে মর্মে অভিযোগ পেয়েছি। রাষ্ট্রীয় ও রাজনৈতিক কার্যক্রমে বিভ্রান্তি সৃষ্টি এবং আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য  জালিয়াতচক্র কর্তৃক এ ধরনের মারাত্মক অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/18/1563387562162.jpg

আওয়ামী লীগ উপ-দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘ইতোমধ্যে বিষয়টি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করা হয়েছে। এই জালিয়াতচক্র সম্পর্কে সকলকে সতর্ক থাকতে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, গত ১০ জুলাই প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের প্যাডে ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষর নকল করে গফরগাঁও পৌরসভার মেয়র বরাবর একটি পত্র প্রেরণ করা হয়। যেটি একটি জাল চিঠি ছিল।

জাতির পিতা ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

জাতির পিতা ফাউন্ডেশনের সভাপতি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী
নব নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হচ্ছে, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশনের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। এ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার মো. মানিকুজ্জামান। তিনি বাংলাদেশ উদ্যোক্তা সংস্থা এবং বাংলাদেশ আমেরিকান কম্পিউটার ফোরামের ফাউন্ডার ও প্রেসিডেন্ট।

গত মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) রাতে বেইলি রোডের মিনিস্টার্স এপার্টমেন্ট ভবনে সংগঠনের সদস্যবৃন্দ নব নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারান্তরীণ দিবস উপলক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন আয়োজিত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সভায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশনের সভাপতি ফরহাদ হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে কারান্তরীণ করে মূলত গণতন্ত্রকেই কারান্তরীণ করা হয়। তৎকালীন অনির্বাচিত ও অবৈধ সরকারই এই কাজটি  করেছিল। দেশের জনগণ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রচেষ্টায় জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্ত  হয়েছেন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষ্যে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন যার সুফল আজ দেশের জনগণ ভোগ করছে।’

বক্তব্যে দেশের উন্নয়ন, কল্যাণ ও জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে  জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সাহায্য করার জন্য তিনি দেশের জনগণ ও  দলীয় কর্মীদের আহ্বান জানান।

আলোচনা সভায় ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মানিকুজ্জামান বলেন, ‘শেখ হাসিনার কারান্তরীনের সময় আমি আমেরিকায় কর্মরত ছিলাম। তাকে অবৈধভাবে তৎকালীন অবৈধ সরকার অন্তরীন করে রাখার সময় দেশের গণতন্ত্র যখন বিপন্ন, সেই সময় আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দের পরামর্শক্রমে দেশে এসে জননেত্রীর মুক্তি, অবৈধ  সরকারকে উৎখাত ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করেছি।’

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন প্রফেসর রোকেয়া বেগম, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল্লাহ আল বাকি, এডভোকেট কামরুজ্জামান, ডাঃ শেখ শহীদুল্লাহ, ও মুরাদ হোসেন প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র