মন্ত্রীর বিরুদ্ধেও সংবাদ হবে: তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, চট্টগ্রাম, বার্তা২৪.কম
চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক সম্মলনে বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ / ছবি: বার্তা২৪

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক সম্মলনে বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে গণমাধ্যম পূর্ণ স্বাধীনতা ভোগ করছে দাবি করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘যদি সত্য ঘটনা হয়, তাহলে মন্ত্রী অথবা রাষ্ট্রের বড় কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও সংবাদ প্রকাশিত হবে। সমালোচনা, বিতর্ক থাকবে, তবে সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে অবশ্যই বস্তুনিষ্ঠতা ও পেশাদারিত্ব বজায় রাখতে হবে।’

রোববার (২৭জানুয়ারি) দুপুরে বঙ্গবন্ধু হলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক সম্মলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অনলাইনের প্রসারের কারণে পত্রিকা, অনলাইন ছাড়াও কিছু এফএম রেডিও গণমাধ্যম হিসেবে কাজ করছে। এদের শ্রোতা এবং বহুমাত্রিকতা কম নয়। কিন্তু এ সুযোগে অপেশাদার, কোয়ালিফাইড নয় এমন অনেকে সচিবালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ঢুকে পড়ে। এদের দৌরাত্ম্য কমিয়ে আনতে অনলাইনকে রেজিস্ট্রশনের আওতায় আনা হচ্ছে, অনেকের তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। রাষ্ট্রের দর্পণ গণমাধ্যমকে ঢেলে সাজানো হবে।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিশ্বে উচ্চমান প্রবৃদ্ধির তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান পঞ্চম। সামগ্রিক দিন বদলের ছোঁয়ায় দেশ খাদ্য উদ্বৃত্ততা অর্জন করেছে। সরকারের ইশতেহার অনুযায়ী ২০৪১ সালের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে।’

গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য নবম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের আশ্বাসও দেন তিনি।

চট্টগ্রাম প্রসক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ারের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম সিটি করপোরশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সাবেক সহসভাপতি আবু ছুফিয়ান, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমউদ্দীন শ্যামল, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহসভাপতি রিয়াজ হায়দার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মিন্টু চোধুরী প্রমুখ।

উল্লখ্য, আগামী ৩০ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। ১৫টি পদের বিপরীতে বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৪৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

আপনার মতামত লিখুন :