কেয়ামত পর্যন্ত অভিযোগ করবে বিএনপি: কাদের

নির্বাচন কমিশনে ওবায়দুল কাদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

কেয়ামতের দিন পর্যন্ত বিএনপি অভিযোগ করবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) নির্বাচন ভবনে সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিল শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের আইন, সংবিধানসহ এগুলো  তারা মানতে চান না। নির্বাচনের পাঁচ বছর পরেই এই উপজেলা নির্বাচন হচ্ছে। গতবার উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপে তারা এগিয়ে ছিল। এখন অংশ নেবে না, কারণ তারা জানে জাতীয় নির্বাচনে যে ভরাডুবি হয়েছে উপজেলা নির্বাচনে তাদের ফল আরো খারাপ হবে। হেরে যাওয়ার ভয়েই তারা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না।

মহিলা আসনে মনোনয়ন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, অনেক যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। দেশ-মুক্তিযুদ্ধ ও আমাদের দলের প্রতি আন্দোলন সংগ্রামে তাদের যে ত্যাগী ভূমিকা  সেটি বিবেচনা করেই তাদের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। আমাদের নেত্রীর নির্দেশনা ছিল, দলে ত্যাগী নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বিবেচনায় নেয়ার বিষয়ে। সংস্কৃতি অঙ্গন থেকে সুবর্ণা মোস্তফাকে বাছাই করা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হয়েছে। 

ভবিষ্যতে মহিলা আসন বাড়ানোর পরিকল্পনা নেই জানিয়ে তিনি বলেন, বাড়াবো না, কমানোর বিষয়ে ভাবা হচ্ছে। নারীরা ‘উইমেন ইমপাওয়ারমেন্টে’ অনেক এগিয়ে গেছে। এখন সাধারণ আসনে নারীদের নাম খুবই কম পাওয়া যায়। তৃণমূল থেকে অনেকটা পুরুষ প্রভাবিত আমাদের রাজনীতি। এই চিত্র পরিবর্তন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।  এখন নারীরা অনেক মনোনয়ন পাচ্ছে। সংরক্ষিত ছাড়াও নারীরা যেখানেই মনোনয়ন চাচ্ছে, তাদের পপুলারিটি কম থাকলেও নেত্রী তাদের মনোনয়ন দিচ্ছেন। ইউনিয়ন পরিষদেও দিয়েছি, এখন উপজেলায়ও সেটি করা হচ্ছে। সামনের দিকে অসেকেই আসবে। উপজেলা নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে তো নারীরা আছেই।

বিএনপির নালিশের বিষয়টি এখন হাস্যকর উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনের আগেই তারা হেরে যান।  আর নির্বাচন হওয়ার আগেই তারা নির্বাচন সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করা, নালিশ করা তাদের পুরনো অভ্যাস। ইতোপূর্বে তারা যেসব নির্বাচনে জিতেছে এমন নির্বাচনেও তারা জলিয়াতির অভিযোগ করেছে। এটা তাদের পুরনো অভ্যাস। এটা তারা করবেই। এটা নিয়ে কারো কোন মাথা ব্যাথা নয়। বিএনপির নালিশের বিষয়টি এখন হাস্যকর হয়ে গেছে।

জাতীয় এর আরও খবর