Alexa

`মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিত আশেক’

`মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিত আশেক’

রাষ্ট্রবিরোধী গুজব ছড়ানোর দায়ে গ্রেফতারকৃত আশেক আহমেদ / ছবি: বার্তা২৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা ও মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বিভ্রান্তিকর, বিতর্কিত এবং কটাক্ষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করে রাষ্ট্রবিরোধী গুজব ছড়াতেন আশেক আহমেদ (৪০)।

মঙ্গলবার (২৫ মার্চ) মিডিয়া সেন্টারে রাষ্ট্রবিরোধী গুজব ছড়ানোর দায়ে গ্রেফতারকৃত আশেক সম্পর্কে এ তথ্য জানান র‍্যাব-৩ এর অধিনায়ক এমরানুল হাসান।

তিনি বলেন, ‘আশেক নিজেকে জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের সভাপতি দাবি করে। সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে শাহদাত বরণকারী শহীদদের প্রতি অশ্রদ্ধা অবজ্ঞা অসম্মান প্রদর্শন করত।’

র‍্যাবের এই অধিনায়ক বলেন, ‘রাষ্ট্রবিরোধী এসব বিষয় ছাড়াও জাতীয় নেতৃবৃন্দের সম্পর্কে বিকৃত কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য ও ছবি পোস্ট করে তাদেরও সম্মান ক্ষুণ্ন করে সে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বিভিন্ন বাহিনীর প্রধানের পরিচয় এবং সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ব্যক্তিদের নাম ভাঙিয়ে, নিয়োগ-বাণিজ্য, টেন্ডার বাণিজ্য, বদলি বাণিজ্য, ভর্তি বাণিজ্য করে বিপুল পরিমাণ টাকা উপার্জন করেছে আশেক।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/25/1553499901553.jpg

এমরানুল হাসান বলেন, ‘ছাত্র জীবন থেকেই আশেক বিএনপির রাজনীতির সাথে সরাসরি জড়িত। সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছে। পরবর্তীতে ২০১০ সালে বাংলাদেশ ত্যাগ করে ইতালিতে প্রবাসী জীবন যাপন করে। ২০১৪ সালে বাংলাদেশে ফিরে এসে বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় হতে শুরু করে। সর্বশেষ ১১তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিজয় হলে, আশেক ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য নিজের রাজনৈতিক পরিচয় গোপন করে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত হওয়ার চেষ্টা করে।’

তিনি বলেন, ‘গতকাল (রোববার) রাতে রাজধানীর তেজগাঁও থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকালে তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।’

জাতীয় এর আরও খবর