সেলফি না তুলে, এক বালতি পানি আনলে ভালো হয়: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা, বার্তা২৪.কম
ছবি: পিআইডি

ছবি: পিআইডি

  • Font increase
  • Font Decrease

বনানীর এফ আর টাওয়ার অগ্নিকাণ্ডে উৎসুক মানুষের অযথা ভিড়ের সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের বাধা না দিয়ে, সেলফি না তুলে, এক বালতি পানি আনলে ভালো হয় বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার (৫ এপ্রিল) গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সভা শুরুর আগে দলের সভাপতি শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। এ সময় অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, ‘কয়েকদিন আগে একটি বহুতল ভবনে আগুন লাগল; এর পরপরই মার্কেট আগুন।..এই ক্ষেত্রে আমি একটা কথা বলবো,  ফায়ার সার্ভিস যখন আগুন নেভাতে যায়,  কিছু লোক খামাখা উত্তেজিত হয়ে তাদের মারে। এমনকি একটা গাড়ি পর্যন্ত ভেঙে দিয়েছে। একটা গাড়ি কিনতে কিন্তু ৯-১০ কোটি টাকা লাগে, যেমন তেমন গাড়ি না ।‘

শেখ হাসিনা বলেন, ‘গাড়ি ভাঙছে, ফায়ার সাভিসের লোক মারছে, তাকে না মেরে, তারা যদি এক আধ বালতি পানি নিয়ে এসে আগুন নেভার চেষ্টা করতো বা কিভাবে উদ্ধার কাজ করা যায়, সেটা করতো, তাহলে তারা একটা ভালো কাজ করেছে বলে আমরা বিবেচনা করতাম। কিন্তু যারা উদ্ধার করতে যায় তাদের বাধা দেওয়া, তাদের ওপর হামলা করা- এটা কোন ধরণের কথা।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/05/1554475684448.jpg

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আগুন লেগেছে, সেখানে দুনিয়ার লোক গিয়ে হাজির। ফায়ার সার্ভিস যেতে পারে না। উদ্ধার কাজে নিয়োজিত মানুষ যেতে পারে না। এটা কোন ধরণের ব্যাপার?’

‘সবাই দেখতে চায় আর সেলফি তোলে। এখানে সেলফি তোলার কী হলো? আমি বুঝতে পারি না। সেলফি না তুলে কয়েক বালতি পানি নিয়ে আসুক বা আগুন নেভানোর ব্যবস্থা করুক, উদ্ধারের কাজ করুক, সেটা না করে সেলফি তুলে কী আনন্দ? সেটা ভেবে সত্যি আমার কাছে অবাক লাগে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশের মানুষের মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। একজনের বিপদে কী ধরনের সাহায্য করা যায়।

এ সময় উদ্ধারতৎরতা, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মানুষের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যে কিছু লোক কাজ করেছে তার প্রশংসা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

গণমাধ্যমকে আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মিডিয়া যখন সরাসরি সম্প্রচার করে, তখন মানুষের আগ্রহ বেড়ে যায়। ভিড় বাড়ে।তাই মিডিয়াকেও দায়িত্বশীল হতে হবে।’

আগুনের নেভানোর সময় পানির সমস্যা দেখা যায় জানিয়ে তিনি বলেন,‘আরেকটা সমস্যা হলো পানির সমস্যা। আগে ঢাকা শহরে অনেক খাল-বিল ছিল, এখন নাই। এখন পানির অভাব।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/05/1554475785767.jpg

‘যদিও ওয়াসার পানি আছে, কোনো সমস্যা হলে ওয়াসার পানি পাওয়া যায়।এই যে গুলশান লেক, এটি একসময় অনেক প্রশস্ত ছিল। এখনকার চেয়ে দ্বিগুণ ছিল।’

সরকার ক্ষমতায় এসেছে ঢাকা শহরের লেকগুলো দখল করে আবাসিক ভবন নিমাণের সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘জিয়া ক্ষমতায় এলো, গুলশান লেক দখল করে ফেলল। এছাড়া ঢাকায় পুকুর ছিল সেগুলো নেই। বানানীর লেক তো বিএনপি দখল করে প্লট করে দিল। সেখানে এখন বিএনপি পল্লী হয়েছে।’

ভবন মালিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘অন্তত যারা বাড়ি করছেন; তাদের খেয়াল রাখতে হবে- প্রত্যেকটা জায়গায় অন্তত একটা করে জলাধার যেন থাকে।’

আপনার মতামত লিখুন :