Barta24

বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

English

ওমরাহ পালনে যাওয়া হলো না আব্দুল হামিদের

ওমরাহ পালনে যাওয়া হলো না আব্দুল হামিদের
আব্দুল হামিদ। ছবি: সংগৃহীত
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
সিলেট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

পবিত্র ওমরাহ পালনে যাওয়া হলো না সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার উজুহাত গ্রামের আব্দুল হামিদের।

রোববার (২১ এপ্রিল) শবে বরাতের দিন রাত ১০টার দিকে সিলেট ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন তিনি।

নিহতের ছেলে পুলিশ সদস্য শামসুদ্দীন জানান, গত ১৭ এপ্রিল সকালে তার বাবা আব্দুল হামিদ পবিত্র ওমরাহ পালনের উদ্দেশে গ্রামের বাড়ি থেকে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে আসছিলেন। পথিমধ্যে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি। এতে আব্দুল হামিদ গুরুতর আহত হলে তাকে সিলেট ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রাতে মারা যান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

কসমেটিক উন্নয়ন নয়, গ্রাম-শহরের ব্যবধান কমাতে হবে: শিল্পমন্ত্রী

কসমেটিক উন্নয়ন নয়, গ্রাম-শহরের ব্যবধান কমাতে হবে: শিল্পমন্ত্রী
শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, ছবি: সংগৃহীত

কসমেটিক উন্নয়ন নয়, গ্রাম-শহরের সত্যিকার ব্যবধান কমাতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাস্তবসম্মত কর্মসূচি গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

বুধবার (২১ আগস্ট) মতিঝিলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ পরামর্শ দেন মন্ত্রী। সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এ সভার আয়োজন করে।

তিনি লুটেরা শ্রেণিকে ধনী বানানোর পরিবর্তে গ্রামের অবহেলিত মানুষের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতিতে অবদান রাখার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্য অর্জনে কাজ করতে সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশের বিশাল যুব জনগোষ্ঠীকে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড হিসেবে উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, 'তাদেরকে উৎপাদন ও উন্নয়নের ধারায় সম্পৃক্ত করা গেলে বাংলাদেশকে কোনোভাবেই দাবিয়ে রাখা সম্ভব নয়। এ দায়িত্ব ব্যাংকিং খাতের ওপর বর্তায়।' তিনি উন্নয়নের সমতার জন্য গ্রাম পর্যায়ে উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির তাগিদ দেন।

৭৫ এর ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ড কোনো পারিবারিক হত্যাকাণ্ড ছিল না উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, 'এটি ছিল বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অভিযাত্রাকে থামিয়ে দিতে পরাজিত শক্তির সুপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এর মাধ্যমে দেশের স্বাধীনতাকে হত্যা করার অপচেষ্টা হয়েছিল। একইভাবে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে বাংলাদেশকে নেতৃত্বশূন্য করতেই ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিল। ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড এবং ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা একই সূত্রে গাথা।'

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার দ্রুত সমাপ্ত করে এর রায় বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, 'ঋণের সমতার মাধ্যমে উন্নয়নের সমতা নিশ্চিত করতে হবে। গ্রামের মানুষের টাকা এনে শহরে বিনিয়োগ করলে উন্নয়নের সমতা আসবে না। দেশে যে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে ওঠছে, সেগুলো সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে হবে।'

সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান একেএম কামরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ। অন্যদের মধ্যে সোনালী ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. নূরুল আলম তালুকদার, ইমতিয়াজ আহমেদ, ড. দৌলতুন্নাহার খানম বক্তব্য রাখেন।

রোববার থেকে চিরুনি অভিযান, লার্ভা পেলে সর্বোচ্চ ৬ মাসের জেল

রোববার থেকে চিরুনি অভিযান, লার্ভা পেলে সর্বোচ্চ ৬ মাসের জেল
স্পেকট্রা কনভেনশন সেন্টারে মশক নিধন এবং পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক পর্যালোচনা সভা

আগামী রোববার ২৫ আগস্ট থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে চিরুনি অভিযান শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। পূর্বের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতিটি ওয়ার্ডকে ১০ ভাগে ভাগ করে ১০টি সাব ব্লকে ভাগ করে প্রতিদিন একটি করে সাব ব্লকে কাজ করবে সিটি করপোরেশনের কর্মীরা।

বুধবার (২১ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর স্পেকট্রা কনভেনশন সেন্টারে মশক নিধন এবং পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা বলেন।

মেয়র আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হাইসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরগণ।

অভিযানে কোনও বাড়িতে লার্ভা পাওয়া গেলে কি ধরণের শাস্তি হতে পারে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মেয়রের পক্ষে ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, ‘মোবাইল কোর্টের আওতাভুক্ত আইনগুলোর মধ্যে পেনাল কোড (২৬৯) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রোগের জীবাণু উৎপাদনের অপরাধে ৬ মাস পর্যন্ত বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং যে কোন পরিমাণ অর্থদণ্ড দিতে পারব। অনুরূপভাবে  পেনাল কোডের (২৭০) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী শাস্তি দিতে পারব। তাছাড়া যেহেতু আমরা পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েছি এই বিষয়ে সর্তক করার জন্য। কাজেই এরপরও যদি কেউ না শোনেন তাহলে পেনাল কোড (১৮৭) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জরিমানা করতে পারব এবং জেল দিতে পারব।

ডিএনসিসি’র এই অভিযানে একটি বাসাবাড়িতে যদি এডিসের লার্ভা পাওয়া যায় তাহলে একটি সর্তকতামূলক স্টিকার লাগিয়ে দেওয়া হবে এবং ধ্বংস করে দেওয়া হবে ওই লার্ভা। এরপর ১০ দিন পর ওই একই বাড়িতে লার্ভা পেলেই জেল জরিমানা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র