রমজানে রংপুরের পুলিশ সদস্যদের সজাগ থাকার নির্দেশ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট রংপুর বার্তা২৪.কম
পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য বিপিএম / ছবি: বার্তা২৪

পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য বিপিএম / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

আসন্ন রমজানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সজাগ থেকে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছেন রংপুর রেঞ্জের উপ-মহা পরিদর্শক (ডিআইজি) দেবদাস ভট্টাচার্য্য বিপিএম।

তিনি বলেছেন, ‘পুলিশ বাহিনীকে সজাগ থাকতে হবে। রমজানকে ঘিরে যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না হয়। নিষ্ঠা ও সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে রংপুর পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ অডিটরিয়ামে রংপুর রেঞ্জের মাসিক আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ পর্যালোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভাপতির বক্তব্যে ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘সারাবিশ্ব আজ উগ্রবাদী অপশক্তির সন্ত্রাসে আক্রান্ত। নিউজিল্যান্ডের পর সার্কভুক্ত শ্রীলংকায় ভয়াবহ হামলা হয়েছে। এ ধরনের হামলা মানবতার প্রতি আঘাত। এই আঘাত সবার জন্য হুমকি। উগ্রবাদীদের ব্যাপারে আমাদের পুলিশ বাহিনীকে আরও বেশি সতর্ক ও সজাগ হতে হবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/25/1556198698042.JPG

সভায় রংপুর বিভাগের আট জেলায় গত মাসের অপরাধ পরিস্থিতি, গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনাসহ আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ বিষয়ক অন্যান্য বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

সভা শেষে রংপুর রেঞ্জে কর্মরত সকল স্তরের পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কর্মস্পৃহা ও কর্মচাঞ্চল্য বাড়ানোর লক্ষে বিভিন্ন ক্যটাগরিতে কৃতিত্বপূর্ণ কর্মকাণ্ডের জন্য নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তাদের হাতে ক্রেস্ট ও আর্থিক পুরস্কার প্রদান করা হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- শ্রেষ্ঠ সার্কেল হিসেবে রংপুর বি-সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ, শ্রেষ্ঠ সাব-ইন্সপেক্টর ও ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার রংপুরের পীরগঞ্জ থানার এসআই এম এ ফারুক, শ্রেষ্ঠ মাদক ও চোরাচালান মালামাল উদ্ধারকারী কর্মকর্তা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার এসআই মো. মমিরুল হক, শ্রেষ্ঠ এএসআই রংপুর সদর কোতোয়ালি থানার এএসআই মো. আবু বক্কর ছিদ্দিক নির্বাচিত হন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/25/1556198719779.jpg

শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইউনিট এবং মোটরসাইকেল আরোহীর নিকট হেলমেট বিক্রয়কারী কর্মকর্তা হিসেবে রংপুর ট্রাফিক ইউনিটের টিআই খান মো. মিজানুর ফাহামী, শ্রেষ্ঠ থানা হিসেবে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাহফুজ আলম, শ্রেষ্ঠ জেলা হিসেবে রংপুর এর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম-বার পুরস্কার গ্রহণ করেন।

এছাড়াও ক্লুলেস খুন মামলার রহস্য উদ্ঘাটনের জন্য কুড়িগ্রাম সদর থানার এসআই মো. মিজানুর রহমান এবং মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারে সাহসিকতাপূর্ণ কাজের জন্য লালমনিরহাট পুলিশ লাইন্সের কনস্টেবল/৫৭৬ নিমাই চন্দ্র মহন্ত ও আদিতমারী থানার কনস্টেবল/২৯১ মো. নাজিরুল ইসলাম দ্বয় বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃত করা হয়।

এ সময় রংপুর বিভাগের আট জেলার পুলিশ সুপারসহ অত্র রেঞ্জের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।