'পাটকল শ্রমিকদের উস্কানি দিচ্ছে অসাধু শ্রমিকনেতারা'

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, খুলনা
খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় শ্রম ও কর্মসংস্থান, ছবি: বার্তা২৪.কম

খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় শ্রম ও কর্মসংস্থান, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কিছু অসাধু শ্রমিক নেতা পাটকল শ্রমিকদের উস্কানি দিয়ে অসন্তোষ করার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

রোববার (১২ মে) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় তিনি এ কথা বলেন। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় পাটকল শ্রমিক অসন্তোষ, পরিবহণে চাঁদাবাজি, ফিটনেসবিহীন যানবাহন, খাদ্যদ্রব্যে ভেজাল, ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণসহ জনগুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সভায় জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির উপদেষ্টা, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, 'রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোর শ্রমিকদের মজুরি আওয়ামী লীগ সরকার প্রায় দশ গুণ বৃদ্ধি করেছে যা বেসরকারি পাটকলগুলোর চেয়েও অনেক বেশি। তারপরও কিছু অসাধু শ্রমিক নেতা উস্কানি দিয়ে শ্রম অসন্তোষ তৈরির চেষ্টা করছে।'

তিনি আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধ করে চলমান সংকটের সমাধান করার আশ্বাস প্রদান করেন।

সভাপতি মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, 'রমজানে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি এবং খাদ্যে ভেজালরোধে নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে প্রশাসন।' তিনি মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ব্যবসা করার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সভায় খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. আকতারুজ্জামান বাবু, পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ, সিভিল সার্জন এস এম আব্দুর রাজ্জাক, বিভিন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনওসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত ৯টি পাটকলে শ্রমিকদের ৮ থেকে ১১ সপ্তাহের এবং কর্মচারীদের তিন থেকে চার মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। বকেয়ার পরিমাণ প্রায় ৫৮ কোটি ৭০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। অর্থাভাবে অর্ধাহারে-অনাহারে পরিবার নিয়ে দিন কাটছে শ্রমিকদের।

আপনার মতামত লিখুন :