Barta24

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সমবায় কর্মকর্তা গ্রেফতার

ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সমবায় কর্মকর্তা গ্রেফতার
ঘুষ গ্রহণকালে গ্রেফতার সমবায় কর্মকর্তা, ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
রাজশাহী


  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী গোদাগাড়ী উপজেলার সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দনাথ দাসকে ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) দুপুর ২টার দিকে উপজেলা সমবায় কার্যালয়ে ঘুষ গ্রহণকালে তাকে আটক করা হয়।

দুদকের রাজশাহী বিভাগীয় পরিচালক মুর্শেদ আলমের তত্বাবধানে উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বাধীন একটি দল তাকে গ্রেফতার করেন।

উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বার্তা২৪.কম-কে জানান, গোদাগাড়ী উপজেলার সরমংলা একতা মৎস্যচাষি সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল বাতেনের কাছ থেকে সমিতির নিবন্ধন করে দেওয়ার নামে ১৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্রনাথ দাস।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/14/1557828386691.jpg

দুই কিস্তিতে তিনি ২ ও ৫ হাজার টাকা দিলেও আরও ৮ হাজার টাকা দাবি করেন নৃপেন্দ্রনাথ। অন্যথায় তিনি ফাইলে স্বাক্ষর করবেন না বলে জানান। এ বিষয়ে সম্প্রীতি দুদকে লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী আব্দুল বাতেন।

সোমবার (১৩ মে) বিষয়টি আমলে নিয়ে ভুক্তভোগী আব্দুল বাতেনের মাধ্যমে ঘুষের টাকা সমবায় কর্মকর্তাকে দিতে পাঠায় দুদক কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুরে তিনি টাকা নিয়ে সমবায় কার্যালয়ে গিয়ে কর্মকর্তা নৃপেন্দ্রনাথের হাতে দেন। এসময় দুদক কর্মকর্তারা সেখানে হাজির হয়ে তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন।

দুদক উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘তার (নৃপেন্দ্রনাথ দাস) বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

ভুক্তভোগী সরমংলা একতা মৎস্যচাষি সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল বাতেন বার্তা২৪.কম-কে বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে মৎস্য অধিদফতরের মাধ্যমে সরকারি প্রকল্প হতে খাঁচায় মাছচাষ করছি। খাঁচায় মাছ চাষের ক্ষেত্রে পোনা সংগ্রহের জন্য পুকুরের প্রয়োজন পড়ে। সেজন্য সরকারিভাবে ইউএনও অফিসের টেন্ডারে অংশ নিয়ে খাস পুকুর লিজ নেয়ার জন্য মাছচাষিদের নিয়ে সমবায় সমিতি গঠন করি।’

তিনি বলেন, ‘ওই সমিতি সকল কাগজপত্র নিয়ে গত ১৩ মার্চ নিবন্ধনের জন্য সমবায় অফিসে গেলে তার কাছে ঘুষ দাবি করেন কর্মকর্তা নৃপেন্দ্রনাথ দাস। প্রথমে দুই হাজার এবং পরে পাঁচ হাজার টাকা দিলেও তিনি আরও আট হাজার টাকা দাবি করেন।

 

আপনার মতামত লিখুন :

একাধিক নারী ও কিশোরকে ধর্ষণ, গ্রেফতার সেই ধর্ষক

একাধিক নারী ও কিশোরকে ধর্ষণ, গ্রেফতার সেই ধর্ষক
প্রতীকী ছবি

রাজধানীর দক্ষিণখানে একাধিক নারী ও কিশোরকে ধর্ষণ এবং বলাৎকার করার অভিযোগে ধর্ষক ইদ্রিস আহম্মেদকে (৪২) গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১। 

রোববার (২১ জুলাই) রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার (২২ জুলাই) সকালে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‍্যাব সদর দফতরের সিনিয়র এএসপি মিজানুর রহমান।

তিনি বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, একাধিক নারী ও কিশোরী সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ভিত্তিতে ধর্ষক ইদ্রিসকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। 

এ বিষয়ে বেলা ১১ টায় কারওয়ান বাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে বিফ্রিং করে বিস্তারিত জানানো হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে প্রিয়া সাহার যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার অভিযোগ মিথ্যা

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে প্রিয়া সাহার যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার অভিযোগ মিথ্যা
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রিয়া সাহা, ছবি: সংগৃহীত

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সঙ্গে প্রিয়া সাহার যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। তিনি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বা মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে যাননি।

সোমবার (২২ জুলাই) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন এ কথা জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে মন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আমন্ত্রণ ও ভিসা পাওয়ার ব্যাপারে প্রিয়া সাহাই ভালো বলতে পারবেন। বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি, তার সন্তানরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করেন। তবে, বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে করা অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই, তা কেবল তার কল্পনাপ্রসূত।

আব্দুল মোমেন বলেন, ওই ঘটনার পর আর ক‘জনের মতো সাংবাদিক সাবেদ সাতীও প্রিয়া সাহার মতো মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন। প্রিয়া সাহা বাংলাদেশ থেকে তিন কোটি ৭০ লাখ ধর্মীয় সংখ্যালঘু গায়েব বা গুম হওয়ার মিথ্যা ও বানানো গল্প উপস্থাপন করেছেন। প্রকৃত ঘটনা জেনেই কেবল গণমাধ্যমকর্মীদের তথ্য উপস্থাপন করা জরুরি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র