Alexa

অনিয়ম রোধে অনলাইন নিবন্ধনে মিলছে রেল টিকিট

অনিয়ম রোধে অনলাইন নিবন্ধনে মিলছে রেল টিকিট

অনলাইন নিবন্ধনে মিলছে টিকিট বিক্রি

কালোবাজারি ও অনিয়ম রোধে কঠোর অবস্থানে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। টিকিট সংগ্রহকারীকে তার নাম, ঠিকানা, গন্তব্যস্থল, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর ও মোবাইল নম্বর দিয়ে নিবন্ধন করে টিকিট সংগ্রহ করতে হচ্ছে। এতে টিকিট পেতে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেকটা বাড়তি সময় নিচ্ছে।

শুক্রবার (২৪ মে) সকালে রাজধানীর বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনের টিকিট কাউন্টার ঘুরে দেখা গেছে, দীর্ঘ লাইনে টিকিটের জন্য অপেক্ষা করছেন যাত্রীরা। সবার হাতে একটি করে স্লিপ। যা, তথ্য কেন্দ্র থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ যাত্রীদের জন্য 'ঈদ অগ্রিম টিকিটের চাহিদা পত্র' সরাবরাহ করেছে। যেখানে নাম, ঠিকানা, গন্তব্যস্থল, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, মোবাইল নম্বরসহ বিভিন্ন তথ্য জানাতে হবে। অনলাইন নিবন্ধন করিয়ে তবেই যাত্রীরা পাচ্ছেন কাঙ্ক্ষিত টিকিট।

এছাড়া যারা আগেই নিবন্ধন করেছেন তাদের নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। শুধুমাত্র মোবাইল নম্বর জানালেই মিলছে টিকিট।

সময় বেশি গেলেও নিবন্ধন পদ্ধতিতে স্বাগত জানাচ্ছেন ঈদের আগাম টিকিট কিনতে আসা বেশিরভাগ যাত্রী। তারা বলছেন, এই সিস্টেমের ফলে কেউ অতিরিক্ত টিকিট নিতে পারবে না। কালোবাজারি বন্ধ হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/24/1558679335241.jpg

বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন থেকে প্রতিদিন ৪ হাজার ৮৭৯ টি টিকিট বিক্রি হচ্ছে। যার মধ্যে অনলাইনে ২ হাজার ৫৪৮ কি এবং কাউন্টার থেকে কাউন্টারে ২ হাজার ৩২১ টি।

তবে অনলাইনের টিকিট বিক্রি সরাসরি রেলওয়ে মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণ করছে বলে জানিয়েছেন বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনের কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার মাহমুদুল হাসান।

তিনি বলেন, আমাদের স্টেশনের জন্য যে সংখ্যক আসন বরাদ্দ রয়েছে সেগুলো বিক্রি করছি। তবে অ্যাপস ও অনলাইনের টিকিট আমাদের দায়িত্বে না। সেটা মন্ত্রণালয় তদারকি করছে। নিবন্ধন করে যাত্রীরা টিকিট নিচ্ছেন। আগে যাদের নিবন্ধন আছে তাদের নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। 

 

 

আপনার মতামত লিখুন :