Alexa

নগরভবন থেকে মনিটরিং হচ্ছে পণ্যের বাজারমূল্য

নগরভবন থেকে মনিটরিং হচ্ছে পণ্যের বাজারমূল্য

নগর ভবন থেকে বাজার মনিটরিং চালু করেছে ডিএনসিসি, ছবি: বার্তা২৪

বাজার নিয়ন্ত্রণে বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা চালু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। প্রতিদিন বাজারের মূল্য তালিকা স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলে যাচ্ছে ডিএসসিসির নিয়ন্ত্রিত বাজারগুলোতে। আর ক্রেতারা চাইলে মূল্য তালিকা যাচাই করে পছন্দের পণ্যটি কিনতে পারছেন সেই বাজার থেকে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান ১২টি বাজারের মধ্যে এরইমধ্যে ৮টি বাজারে ডিজিটাল মূল্য তালিকার বোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। বাকিগুলোর কাজ চলছে। আসন্ন ঈদের পর সকল মার্কেটেই ডিজিটাল মূল্য তালিকা টাঙানো থাকবে। প্রতিদিন সকাল ১০টার মধ্যে কৃষি বিপণন অধিদফতর থেকে বাজারের মূল্য তালিকা যাবে ডিএসসিসির আইসিটি বিভাগে। সেখান থেকে মুহূর্তে নির্ধারিত বাজারের ডিজিটাল বোর্ডে উঠে যাবে ওই দিনের মূল্য তালিকা।

নির্ধারিত মূল্যের বেশি নিলে ক্রেতারা অভিযোগ জানাতে পারবেন ডিএসসিসির কন্ট্রোল রুমে। এর আগে গত ৯ মে রাজধানীর হাতিরপুল বাজার পরিদর্শনে এসে মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন কথা দিয়েছিলেন দুই সপ্তাহের মধ্যে ডিএসসিসির বাজারগুলোতে ডিজিটাল মূল্য তালিকা দেওয়া হবে।

তখন মেয়র বলেছিলেন, প্রতিদিন বাজারে এসে মনিটরিং করা একটা জটিল কাজ এবং প্রচুর লোকবল দরকার। তাই আমরা নগর ভবনে বসেই বাজার মনিটরিং করতে যাচ্ছি।

মেয়রের কথা অনুযায়ী কাজ শুরু করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগ। এরইমধ্যে ডিএসসিসির হাতিরপুল, কাঠালবাগান, বনলতা-১, বনলতা-২, নওয়াব ইউসুফ আলী কাঁচাবাজার, ঠাঁটারীবাজার, খিলগাঁও কাঁচাবাজার, সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজারে ডিজিটাল মূল্য তালিকা টাঙানো হয়েছে। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, ডিএসসিসি নির্ধারিত বাজারগুলো ঢুকতেই চোখে পড়ছে দৈনিক খুচরা বাজার দর। এখানে প্রতিটি পণ্যের নামের পাশে ওই দিনের বাজার দর লেখা রয়েছে। মূল্য তালিকা সূত্র হিসেবে লেখা রয়েছে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর।

ডিজিটাল মূল্য তালিকা বোর্ড সম্পর্কে ডিএসসিসির প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. ইউসুফ আলী সরদার বার্তা২৪.কম-কে বলেন, মেয়রের নির্দেশের পরপরই আমাদের কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। এরইমধ্যে ৮টি বড় বাজারে ডিজিটাল মূল্য তালিকার বোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। বাকিগুলো ঈদের পর লাগানো হবে। এখন প্রতিদিন সকাল ১০ টার মধ্যে আমরা ওইসকল বাজারে মূল্য তালিকা দিয়ে দিচ্ছি। এতে ক্রেতাদের প্রতারিত হওয়ার সুযোগ কমে আসছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/25/1558777334976.jpg

এই ডিজিটাল মূল্য তালিকায় মাছ, মাংস, মুরগি, শাক-সবজি, চাল, ডাল, তৈলসহ সকল পণ্যের প্রতিদিনের বাজার তালিকা প্রতিদিন আপডেট করা হবে। তবে এই তালিকা কতটা ব্যবসায়ীরা মেনে চলবেন তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে জনমনে।

হাতিরপুল বাজারে বাজার করতে আসা নেকবর আলী বার্তা২৪.কম-কে বলেন, ‘মূল্য তালিকা দিয়েছে কিন্তু সেটা কতদিন থাকবে দেখার বিষয়। আজ তো দেখলাম তালিকা অনুযায়ী দাম নিচ্ছে। বেশি নিলে আমরা কোথায় অভিযোগ করব সেটা থাকলে ভাল হতো।’ 

সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজারের ব্যবসায়ী মো. ফারুখ শেখ বার্তা২৪.কম-কে বলেন, ‘ডিজিটাল বোর্ড লাগাইছে আমগো লাইগা ভাল হয়েছে। কাস্টমার তালিকা যাচাই করে আমগো মুলামুলি করা লাগে না।’

তবে আপাত দৃষ্টিতে যাই হোক বাজারগুলো এভাবে যদি সত্যিই মনিটরিং করা যায় তাহলে অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম কমবে বলেই মনে করেন ক্রেতারা। শুধু রমজান মাস নয় সারা বছরই এই মনিটরিং ব্যবস্থা চালু রাখার দাবি ভোক্তাদের।

আপনার মতামত লিখুন :