মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আপস করব না: তুরিন আফরোজ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বক্তব্য রাখছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, ছবি: বার্তা২৪

বক্তব্য রাখছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেছেন, আমার মানচিত্র বাংলাদেশ, আমার পতাকা লাল-সবুজ, আমার নেতা বঙ্গবন্ধু, আমার জীবনের একমাত্র বাস্তবতা একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ। আর তাই মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়ে আমি কোন আপস করব না।

শনিবার (১৫ জুন) প্রেসক্লাবে একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধা' নামক সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে একথা বলেন তিনি। মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ সন্তান ঘোষণা করে তাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি দেবার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানান তিনি।

তিনি উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে বলেন, ‘এই দেশ আপনাদের দেশ, আপনাদের ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত এই দেশ। আমরা যে যেখানে যে পদে আসীন হয়েছি, যে সুবিধাই নিচ্ছি না কেন তা আপনাদের জন্য সম্ভব হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন না করলে বাঙালির দৌড় হতো বড়োজোর পাকিস্তানিদের খানসামা হওয়া পর্যন্ত। কাজেই কেউ যদি আপনাদের বিন্দুমাত্র অসম্মানের চেষ্টা করেন তিনি যেই হোক না কেন তাদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠুন। যেমনটি আপনারা গর্জে উঠেছিলেন পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে।’

মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মানকারীদের হুঁশিয়ার করে ব্যারিস্টার তুরিন বলেন, ‘এই দেশ মুক্তিযোদ্ধাদের দেশ–এই ধ্রুব সত্যটি মানতে আপনাদের কষ্ট হলে দয়া করে পাকিস্তান চলে যান। সেখানে আপনাদের পূর্ব পুরুষরা ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেবে। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধাদের দেশে থেকে তাদেরকে অপমান করা বরদাশত করা হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের সংবিধানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে সাংবিধানিক স্বীকৃতি থাকলেও মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়ে কোনো সাংবিধানিক স্বীকৃতি নেই, অথচ আফ্রিকার অনেক পিছিয়ে পড়া দেশেও সেটা রয়েছে। বিষয়টি সত্যিই দুঃখজনক। তাই তাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি এখন সময়ের দাবি।’

মো. রুস্তম আলী মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গোলটেবিল বৈঠকে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন কামাল আহমেদ। গোল টেবিল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ডা. এম এ হাসান, ম.হামিদ, তারেক আলী, অধ্যাপক এম এম আকাশসহ একাত্তরের রনাজ্ঞনের মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ।

আপনার মতামত লিখুন :