রাজধানীর প্রধান সড়কগুলোতে রিকশা বন্ধ হবে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
রাজধানীর প্রধান সড়কগুলোতে রিকশা বন্ধ হবে/ছবি: বার্তা২৪.কম

রাজধানীর প্রধান সড়কগুলোতে রিকশা বন্ধ হবে/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর যানজট নিয়ন্ত্রণে কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে যাচ্ছে সরকার। এরইমধ্যে আগামী ৭ জুলাই থেকে রাজধানীর ৩ টি প্রধান সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত পুরো রাজধানী জুড়েই বাস্তবায়নের দিকে যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। প্রাথমিক ধাপের কাজটি সফল হলে পরবর্তীতে আরো কয়েকটি রাস্তায় এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের ঘোষণা দেওয়া হবে।

ঢাকা ট্রান্সপোর্ট কো-অর্ডিনেশন কমিটির সমন্বয় সভায় এসব সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ৭ জুলাই পরীক্ষামূলক ওই তিনটি সড়কের বাস্তব অভিজ্ঞতা নিয়ে পরবর্তীতে ১৪ জুলাই আবারও বৈঠকে বসবে সমন্বয় কমিটি। সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের সভাপতিত্বে ওই সভায় পরবর্তী ঘোষণা আসতে পারে।

বুধবার (০৩ জুলাই) নগর ভবনে মেয়রের সভাকক্ষে সমন্বয় কমিটির সভায় এসব সিদ্ধান্ত হয়। এরপর প্রগতি সরণি, সোনারগাঁও জনপদ, জসিম উদ্দিন রোড, রবীন্দ্র সরণি, মোহাম্মদপুর সাত মসজিদ রোড- ধানমন্ডী-২৭, জিগাতলা-শংকর-ধানমণ্ডি ২ নং রোড-মানিক মিয়া এভিনিউসহ যেসকল রুটে গণপরিবহন চলাচল করবে ওইসকল রুটে অযান্ত্রিক সব ধরণের যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে সরকার।

সমন্বয় সভায় রিকশা বন্ধের আগে জনদুর্ভোগের কথা চিন্তা করে পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়নের দিকে যেতে চায় সমন্বয় কমিটি। তবে তার আগে ওইসকল রুটে পর্যাপ্ত বাস সার্ভিস নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছে কমিটির সদস্যরা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/03/1562167288998.jpg

সভায় আলোচনাকালে সদস্যরা বলেন, রিকশা বন্ধ করলে আন্দোলন হতে পারে। এসময় ডিটিসিএ’র নির্বাহী পরিচালক রকিবুর রহমান বলেন, বন্ধ করলে সমস্যা হবে এই চিন্তা করে বসে থাকলে চলবে না। আমাদের কাজ করতে হবে। এই সেক্টরে আমরা কাজ করি নাই। ১৯৮৬ সালের পর যেহেতু আর কোনো রিকশাকে লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। তারমানে আমরা এতদিন এই সেক্টরে কাজ করিনি।

এদিকে ডিটিসিএ’র সমন্বয় সভায় জানানো হয়, ১৯৮৬-৮৭ অর্থ বছরে জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে অযান্ত্রিক যানবাহন হাজিরকরণ সাপেক্ষে লাইসেন্স দেওয়া হয়েছিল। সেই হিসেবে সিটি কর্পোরেশনের লাইসেন্সভুক্ত অযান্ত্রিক যানবাহন মাত্র ৫৮ হাজার ৭৬৭টি। তারমধ্যে রিকশা ৫২ হাজার ৭১২টি, প্রাইভেট রিকশা ২৫ টি, ভ্যান ৫ হাজার ৮৬০ টি, টালী গাড়ি ৩ টি, ঠেলা গাড়ি ৭৬ টি, ঘোড়ার গাড়ি ১৪ টি। অথচ ঢাকায় রিকশা চলছে কয়েক লাখ।

মেয়র সাঈদ খোকনের সভাপতিত্বে সমন্বয় সভায় উপস্থিত ছিলেন, ডিটিসিএ’র নির্বাহী পরিচালক রাকিবুর রহমান, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ ভূঁইয়া, ঢাকা পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :