Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

২০ হাজার টাকা ইন্টার্ন ভাতা চান নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা

২০ হাজার টাকা ইন্টার্ন ভাতা চান নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা
চার দফা দাবিতে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সভা/ ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ময়মনসিংহ


  • Font increase
  • Font Decrease

ইন্টার্ন ভাতা ছয় হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ হাজার টাকা করাসহ চার দফা দাবিতে ময়মনসিংহে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছেন ময়মনসিংহ নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার (৬ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ক্লাস, ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিস ও পরীক্ষা বর্জন করে কলেজ ফটকে এ প্রতিবাদ সভা করেন তারা।

দাবিগুলো হচ্ছে- চার বছর মেয়াদী বিএসসি ইন নার্সিং কোর্সের জন্য বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিল কর্তৃক প্রণীত নতুন কারিকুলাম রিভিউ এবং তার আগ পর্যন্ত পুরাতন কারিকুলাম বহাল রাখা, নার্সিং পেশায় স্বতন্ত্র পেশাগত ক্যাডার সার্ভিস বিসিএস (সেবা) চালু করা, ইন্টার্ন ভাতা ছয় হাজার টাকা থেকে ২০ হাজার এবং স্টাইপেন্ড দুই হাজার টাকা হতে পাঁচ হাজার টাকায় উন্নীত করা, সকল নার্সিং কলেজের জন্য ক্লিনিক্যাল প্র্যাকটিস নার্স (সিপিএন) পদ সৃজনপূর্বক নার্সিং কলেজ সমূহ পূর্ণাঙ্গ কলেজে রূপান্তরিত করা।

বাংলাদেশ বেসিক গ্রেজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের (বিবিজিএসএনএ) আয়োজনে এ প্রতিবাদ সভায় ময়মনসিংহ নার্সিং কলেজের তিন শতাধিক শিক্ষার্থী জমায়েত হয়ে বিভিন্ন স্লোগানে তাদের এসব দাবি তুলে ধরেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ময়মনসিংহ নার্সিং কলেজের স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ বেসিক গ্রেজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শাব্বির আহমদ, স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস, উপদেষ্টা জান্নাতুল নাঈম সমীক্ষা, বিবিজিএসএনএ’র কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাসুম পারভেজ, অর্থ সম্পাদক শাকিল আহমদ প্রমুখ।

প্রতিবাদ সভা শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি কলেজ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

আপনার মতামত লিখুন :

রেনু হত্যার প্রধান আসামি হৃদয় গ্রেফতার

রেনু হত্যার প্রধান আসামি হৃদয় গ্রেফতার
তাসলিমা বেগম রেনু হত্যার মূল আসামি হৃদয়/ ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয়কে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পূর্ব বিভাগের মাদক উদ্ধার টিম।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের ভূলতা থেকে তাকে আটক করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম। তিনি বলেন, ‘আজ সন্ধার দিকে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয়কে গ্রেফতার করে ডিবির একটি টিম।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/23/1563900973518.jpg

এর আগে মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর গুলিস্তানের গোলাপ শাহর মাজার থেকে উত্তর বাড্ডায় গণপিটুনিতে নিহত তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয় সন্দেহে এক যুবককে শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে তুলে দেয় সাধারণ মানুষ।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘গুলিস্তানের গোলাপ শাহর মাজার থেকে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয় সন্দেহে এক যুবককে আটক করে সাধারণ মানুষ আমাদের কাছে নিয়ে আসে। সে হৃদয় কিনা তা আমরা জানি না। আমরা বাড্ডা থানা পুলিশের কাছে তাকে পাঠিয়ে দিয়েছি। এখন তারা নিশ্চিত করবেন আটক যুবক হৃদয় কিনা।’

আরও পড়ুন: রেনু হত্যার প্রধান আসামি হৃদয় সন্দেহে যুবক আটক

চট্টগ্রামে দগ্ধ হয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু

চট্টগ্রামে দগ্ধ হয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু
আগুন

চট্টগ্রাম নগরীর ইপিজেড এলাকায় একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাত সাড়ে আটটায় কলসী দীঘির বস্তিতে আগুনের সূত্রপাতহয়।

এ অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে মারা গেছেন নাসিমা বেগম (৩৫) ও তার মেয়ে লামিয়া (৭)।

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক জসিম উদ্দীন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটের দেড় ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থল থেকে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র