Barta24

শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

সংস্কার কাজে গরমিলে রাজশাহীতে ট্রেন দুর্ঘটনা

সংস্কার কাজে গরমিলে রাজশাহীতে ট্রেন দুর্ঘটনা
বুধবার রাজশাহীর চারঘাটে তেলবাহী ট্রেনের ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়/ ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
রাজশাহী


  • Font increase
  • Font Decrease

ক্রুটি রেখে সংস্কার কাজ শেষ করায় রাজশাহীর চারঘাটে তেলবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রকৌশলীরা। দুর্ঘটনার পর বুধবার (১০ জুলাই) রাতে গঠিত তদন্ত কমটি বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল থেকে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে। ঐ তদন্ত কমিটির প্রধান পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বিকাল ৩টার দিকে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের গুরুত্বপূর্ণ রুট ঈশ্বরদী থেকে রাজশাহীর হরিয়ান পর্যন্ত লাইন সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। তবে বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়ার কারণে কিছুদিনের জন্য সংস্কার কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/11/1562839670338.jpg

তদন্ত কমিটির প্রধান বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমাদের নজরে পড়েছে, কয়েকটি অকেজো স্লিপার পরিবর্তনের সময় সেখানে ডগস্পাইক (স্লিপারের সঙ্গে লাইন আটকে রাখে) খুলে ফেলা হয়েছিল। স্লিপার লাগিয়ে পরে আর ঐ স্থানে সেগুলো লাগানো হয়নি। পাথর ফেলার সময় যেকোনোভাবে সেটা ঢেকে গিয়েছিল।’

তিনি বলেন, ‘যাত্রীবাহী ট্রেন ক্রুটিপূর্ণ লাইনের ওপর দিয়ে চলাচল করেছে বেশ কিছুদিন। তাতে কোনো সমস্যা হয়নি। ফলে লাইন ক্লিয়ার আছে বলে ধরা হয়েছিল। তবে গত দুই/তিন দিনের বৃষ্টিতে ঐ স্থান কিছুটা নরম হয়ে নিচের মাটি দেবে যায়। আর বৃষ্টির মধ্যেই বুধবার বিকালে তেলবাহী ভারী ট্রেনটি ঐ স্থানে পৌঁছালে দুর্ঘটনা ঘটে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/11/1562839683776.jpg

এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত দুর্ঘটনা কবলিত নয়টি বগির মধ্যে নাজুক অবস্থায় থাকা চারটি বগি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। বাকি বগিগুলো দ্রুত সরানো যাবে বলে জানিয়েছেন ঘটনাস্থলে থাকা রাজশাহী রেলওয়ের একাধিক কর্মকর্তা। তাদের ধারণা- লাইন মেরামত করে রাতের ধূমকেতু ট্রেনটির যাত্রার মধ্য দিয়ে চলাচল স্বাভাবিক করা সম্ভব হবে।

রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, খুলনা থেকে বুধবার সকালে তেলবাহী একটি ট্রেন ছেড়ে আসে। বিকালে ঈশ্বরদী স্টেশন থেকে রাজশাহী অভিমুখে যাত্রা করে ট্রেনটি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে চারঘাটের হলিদাগাছী স্টেশনের কাছে দীঘলকান্দি এলাকায় ট্রেনের ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়। খবর পেয়ে সাড়ে ৭টার দিকে ঈশ্বরদী স্টেশন থেকে একটি রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে যায়। রাত সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হয় উদ্ধারকারজ। ঐ সময় দুর্ঘটনার শিকার ট্রেনটি সামনের বগিগুলো নিয়ে রাজশাহীর হরিয়ান স্টেশনে চলে যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/11/1562839700881.jpg

এদিকে, দুর্ঘটনার পর পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। আর ঘটনা তদন্তে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুনকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কমিটির সদস্যদের প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রতিবেদন পাওয়ার আগে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের কোনো কর্মকর্তাই দুর্ঘটনার কারণ জানাতে রাজি হননি।

আপনার মতামত লিখুন :

স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ স্বামীর

স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ স্বামীর
স্ত্রী হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার স্বামী শরিফুল ইসলাম/ ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহীর পবা উপজেলায় লাভলী বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন তার স্বামী শরিফুল আহমেদ। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার শিতলাই ইউনিয়নের কলারটিকর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত লাভলী বেগম পবা উপজেলার সাইরপুকুর গ্রামের বাবলু মিয়ার মেয়ে। অভিযুক্ত শরিফুল আহমেদ কলাটিকর গ্রামের কাশেম আলী খোকার ছেলে। প্রায় ১০ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। শরিফুল ও লাভলীর সংসারে দু’টি সন্তানও রয়েছে।

রাজশাহীর দামকুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে জানান, রাত সাড়ে ৪টার দিকে শরিফুল থানায় এসে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের জানান যে, তিনি তার স্ত্রীকে হত্যা করে বাড়িতে রেখে এসেছেন। তাকে গ্রেফতার করে জেলে দিতে বলেন। বিষয়টি শুনে প্রথমে পুলিশ তাকে অস্বাভাবিক বা পাগল ভেবেছিল। পরে তিনি জোর দিয়ে সবকিছু বলতে শুরু করলে থানা থেকে তার বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়। ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ওসি জানান, শরিফুলের ভাষ্যমতে- তার স্ত্রী পরকীয়ায় লিপ্ত ছিল। এজন্য বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঘুমিয়ে যাওয়ার পর রাত আড়াইটার দিকে প্রথমে স্ত্রী লাভলীর মাথায় আঘাত করেন তিনি। পরে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে এবং পায়ের রগ কেটে মৃত্যু নিশ্চিত করেন। এরপর তিনি গোসল করে ফ্রেশ হয়ে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরের রাস্তা পায়ে হেঁটে থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেন।

ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘নিহত লাভলীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় লাভলীর বাবা বাবলু থানায় শরিফুলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। ঐ মামলায় শরিফুলকে গ্রেফতার দেখানো হয়। শুক্রবার বিকালে তাকে আদালতে তোলা হবে। সেখানে তার স্বাকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেওয়া হবে।’

ঈদুল আজহা:  বাসের আগাম টিকিট বিক্রি ২৬ জুলাই

ঈদুল আজহা:  বাসের আগাম টিকিট বিক্রি ২৬ জুলাই
টিকিট সংগ্রহের জন্য বাস কাউন্টারগুলোতে যাত্রীদের দীর্ঘ লাইন, পুরনো ছবি

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে আগামী ২৬ জুলাই থেকে বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে।

শুক্রবার (১৯ জুলাই) হানিফ পরিবহনের ম্যানেজার মোশারফ হোসেন আগাম টিকিট বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মোশারফ হোসেন বলেন, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের মিটিংয়ে ২৬ জুলাই থেকে বাসের অগ্রিম টিকিট বিতরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হানিফ পরিবহনসহ সকল বড় পরিবহনগুলো একই দিনে সকাল ছয়টা থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করবে। এই দিনে সারা দেশের সকল রুটের বাসের আগাম টিকিট একযোগে বিক্রি শুরু হবে।

এ দিকে, আগামী ২৯ জুলাই থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। টিকিট বিক্রি চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র