Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসার আড়ালে কোটি টাকার স্বর্ণ পাচার

মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসার আড়ালে কোটি টাকার স্বর্ণ পাচার
আটককৃত আব্দুর রাজ্জাক শেখ ও মো. আনোয়ার হোসেন, ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বগুড়া


  • Font increase
  • Font Decrease

মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসার কারণ দেখিয়ে অবাধে মালয়েশিয়া যাতায়াত করত আব্দুর রাজ্জাক শেখ ও মো. আনোয়ার হোসেন। কিন্তু তারা মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবসার আড়ালে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত এক ব্যক্তির কাছ থেকে কোটি কোটি টাকার অবৈধ স্বর্ণ বাংলাদেশে নিয়ে আসত।

চোরাই পথে আনা স্বর্ণর ব্যবসা করে নামে-বেনামে অঢেল সম্পদের মালিক হোন উল্লেখিত দুইজন। আর এসব অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার (১৫ জুলাই) তাদের গ্রেফতার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সিআইডির মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শারমিন জাহান এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

শারমিন জাহান বলেন, 'গত রোববার (১৪ জুলাই) মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে নিয়ে আসা ১২টি স্বর্ণর বারসহ দুইজনকে আটক করে শুল্ক গোয়েন্দা। এই বিষয়ে বিমান বন্দর থানায় একটি মামলা রুজু হয়। পরে মামলার তদন্তভার সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়। মামলার গ্রেফতার হওয়া ২ আসামিকে জিজ্ঞেসবাদ করে স্বর্ণ চোরাচালান চক্রের মূল হোতাসহ বেশ কয়েকজনের নাম জানতে পারে সিআইডি। এছাড়া এই চক্রটির বিষয়ে এবং মালয়েশিয়া থেকে দেশে আসা অবৈধ স্বর্ণর চালান সম্পর্কেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পারে সিআইডি।'

তিনি বলেন, 'এসব তথ্যের ওপর ভিত্তি করে সোমবার রাজধানীর মালিবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই চক্রের মূল হোতা আব্দুর রাজ্জাক শেখ ও তার সহযোগী মো. আনোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবসার আড়ালে মালয়েশিয়া অবস্থানরত এক ব্যক্তির কাছ থেকে স্বর্ণ অবৈধভাবে দেশে নিয়ে আসতেন। পরে এসব স্বর্ণ বিভিন্ন কায়দায় বিক্রি করে তারা অঢেল অর্থ সম্পত্তির মালিক হয়েছেন। এছাড়া তাদের নামে বিভিন্ন ব্যাংকে কোটি কোটি টাকার লেনদেনের তথ্য পাওয়া গিয়েছে। উক্ত চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের আইনের আওতায় আনার জন্য মামলাটি সিআইডি কর্তৃক তদন্তাধীন আছে।'

আপনার মতামত লিখুন :

ডিএসসিসি’র নতুন ওয়ার্ডে আঞ্চলিক কর্মকর্তা নিয়োগ

ডিএসসিসি’র নতুন ওয়ার্ডে আঞ্চলিক কর্মকর্তা নিয়োগ
ডিএসসিসি লোগো

অবশেষে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে (ডিএসসিসি) যুক্ত হওয়া পাঁচটি নতুন এলাকায় পাঁচজন নির্বাহী কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নিয়োগ পাওয়া ব্যক্তিরা সবাই উপসচিব পদমর্যাদার সরকারি কর্মকর্তা।

সোমবার (১৯ আগস্ট) ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে তাদের দায়িত্ব বণ্টন করা হয়।

ডেঙ্গু নিয়ে চলমান সংকট ও নতুন এলাকাগুলোতে প্রশাসনিক কার্যক্রম মোকাবিলায় এই কর্মকর্তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে গত ৪ আগস্ট স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে তাদের ডিএসসিসিতে আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা পদে প্রেষণে সংযুক্ত করা হয়।

নতুন পাঁচটি অঞ্চলে নিয়োগ পাওয়া আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তারা হলেন—জাহিদ হোসেন ছিদ্দিক, মো. শাহীদুর আলম, মোহাম্মদ আশরাফুল আলম খান, মো. খায়রুল হাসান ও মো. আব্দুল বাতেন।

এর মধ্যে জাহিদ হোসেন ছিদ্দিককে অঞ্চল-৬, মো. শাহীদুল আলমকে অঞ্চল-৭, মোহাম্মদ আশরাফুল আলম খানকে অঞ্চল-৮, মো. খায়রুল হাসানকে অঞ্চল-৯ ও মো. আব্দুল বাতেনকে অঞ্চল-১০ এর নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব বণ্টন করা হয়।

রাজধানীর স্বামীবাগে ভবন থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

রাজধানীর স্বামীবাগে ভবন থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর স্বামীবাগের করাতিটোলায় ভবনের ছাদ থেকে পড়ে সাব্বির হোসেন রাফি (১৮) নামে বিএএফ শাহীন স্কুল ও কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (১৯ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে বেলা ১১ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, ছাদে রেলিং না থাকায় অসাবধানতাবশত হঠাৎ সে নিচে পড়ে যায়। পরে তাকে ঢামেকে নিয়ে গেলে বেলা ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। নিহত সাব্বির বিএএফ শাহীন স্কুল ও কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ ঢামেকের মর্গে রাখা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র