শেবাচিমে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৭৯, সংকট জায়গার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, বরিশাল
রোগীতে পূর্ণ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

রোগীতে পূর্ণ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৭৯ জন রোগী। গত ২৪ ঘণ্টায় এ হাসপাতালে শিশুসহ ৩৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। যার মধ্যে তিনজন শিশু, ২৪ জন পুরুষ ও ৬ জন নারী রয়েছেন। গতকাল বুধবার (৩১ জুলাই) ভর্তিকৃত রোগীর সংখ্যা ছিল ৫০ জনে।

বিষয়টি বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) দুপুরে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে নিশ্চিত করছেন শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন।

এদিকে, হাসপাতাল থেকে ঠিকমত সব ওষুধ পাচ্ছেন না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চিকিৎসাধীন রোগী ও তাদের স্বজনরা।

তারা বলছেন, ডেঙ্গু রোগীদের জন্য এখনো কোনো আলাদা ওয়ার্ড চালু করা হয়নি। পাশাপাশি ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের ভর্তিকৃত ওয়ার্ডগুলোতে জায়গা সংকট দেখা গেছে।

এ বিষয়ে শেবাচিম হাসপাতাল পরিচালক বলেন, 'এ হাসপাতালে ডেঙ্গু সহ সব রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে। তবে কিছুটা জায়গা সংকট দেখা দিয়েছে। কারণ ৫০০ শয্যার হাসপাতাল হলেও আমরা এক হাজার শয্যার কার্যক্রম চালাচ্ছি। এখন প্রতিদিনই হাসপাতালে প্রায় ১৫ শতাধিক রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন ও থাকছেন। এরপরও প্রতিনিয়তই ওয়ার্ড ও টয়লেট পরিষ্কার করা হলেও রোগীর চাপ থাকায় তা পরিষ্কার রাখা সম্ভব হচ্ছে না। এজন্য রোগী ও তাদের স্বজনদের সচেতন হতে হবে।'

প্রসঙ্গত, গেল ১৬ জুলাই থেকে শুরু করে বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) দুপুর পর্যন্ত শেবাচিমে ভর্তি হয়েছেন ১৩৪ জন ডেঙ্গু রোগী। যার মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন দুই যুবক আর চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৫৩ জন।

এছাড়াও ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) রাতে বরিশালের গৌরনদী সদর উপজেলার আশোকাঠী গ্রামের আলেয়া বেগম (৫৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :