ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে স্পেশাল লঞ্চ সার্ভিস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, বরিশাল
বরিশাল লঞ্চ টার্মিনাল/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বরিশাল লঞ্চ টার্মিনাল/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে যাত্রীদের জন্য স্পেশাল লঞ্চ সার্ভিস শুরু হবে আগামী ৮ আগস্ট থেকে। যা চলবে আগামী ২০ আগস্ট পর্যন্ত। বিশেষ সেবার পাশাপাশি সরকারি স্টিমার-জাহাজেরও বিশেষ সেবা চালু থাকবে।

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) সকাল থেকে শুরু হয়েছে লঞ্চের অগ্রিম টিকিট বিক্রির কার্যক্রম। এবারও কেবিন ও সোফার জন্য যাত্রীদের কাছ থেকে চাহিদাপত্র গ্রহণ করে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ। সেই অনুযায়ী টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে।

সুন্দরবন নেভিগেশনের বুকিং কাউন্টার ব্যবস্থাপক মোঃ জাকির হোসেন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘যাত্রীদের সেবা নিশ্চিত করতে সুন্দরবন নেভিগেশন গেল ২৫ জুলাই থেকে ২৮ জুলাই পর্যন্ত টিকিট সংগ্রহকারীদের টোকেন দেওয়া হয়। সেই অনুযায়ী ২৮ জুলাই বিকাল থেকেই আগাম টিকিট বিক্রি শুরু করেছি।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/01/1564673713169.gif

এমভি মানামী লঞ্চের বুকিং কাউন্টারের মোঃ হালিম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘সরাসরি যাত্রীদের চাহিদা অনুযায়ী আগাম টিকিট বিক্রি শুরু করেছি। যে আগে আসছে, তাকে আগে দিয়েছি।’

বাংলাদেশ যাত্রীবাহী নৌ পরিবহন সংস্থার কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও সুন্দরবন নেভিগেশনের স্বত্বাধিকারী সাইদুর রহমান রিন্টু বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে জানান, ঈদে ঢাকা -বরিশাল নৌরুটে যাত্রীদের আসা-যাওয়ার জন্য ২০ থেকে ২১টি বিলাসবহুল লঞ্চ চলাচল করবে।

বিআইডব্লিউটিএ’র বরিশালের নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-পরিচালক আজমল হুদা মিঠু জানান, বরিশাল নৌ বন্দর এলাকায় পর্যাপ্ত সুপেয় পানি সরবারহ, যাত্রী ছাউনি ও যাত্রীদের সকল সেবা প্রদান করা হবে। এছাড়াও বন্দর এলাকায় র্যাব, পুলিশ, নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ড, আনসার ও রোভার স্কাউটের সদস্যরা যাত্রীসেবায় নিয়োজিত থাকবেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/01/1564673728487.gif

বিআইডব্লিউটিসি’র বরিশালের সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ বার্তা টোয়েন্টিফোর.কম কে বলেন, ‘বিগত ঈদের মতো এবারো ঢাকা-মোড়লগঞ্জ ভায়া বরিশাল নৌরুটে সরকারি পাঁচটি নৌযান চলাচল করবে। যা আগামী ৮ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে ঈদের পর এক সপ্তাহ পর্যন্ত যাত্রীদের জন্য স্পেশাল সার্ভিস চালু থাকবে।’

আপনার মতামত লিখুন :