‘ফ্রি মশারি নিতে হলে রোদে বসতে হবে’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব চত্বরে সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীদের মাঝে মশারি বিতরণ অনুষ্ঠান/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব চত্বরে সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীদের মাঝে মশারি বিতরণ অনুষ্ঠান/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ডেঙ্গু প্রতিরোধের অংশ হিসেবে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীদের মাঝে মশারি বিতরণ করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) সকাল ১১টা সংসদ ভবনের পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব চত্বরে মশারি নিতে আসা কর্মচারীদের দীর্ঘক্ষণ প্রখর রোদে বসিয়ে রাখেন আয়োজকরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী মঞ্চে আসার আগে এর সামনে সারিবদ্ধভাবে রাখা চেয়ারে সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীদের বসানোর আপ্রাণ চেষ্টা করা হয়। কিন্তু কেউ রাজি হচ্ছিলেন না। কারণ প্রখর রোদ।

মশারি বিতরণ কার্যক্রমের জন্য ছাউনিসহ মঞ্চ বানানো হলেও সামনে কোনো ছাউনি নেই। তাই কর্মচারীরা আশেপাশের গাছের নিচে ও ট্যানেলে আশ্রয় নেন। কিন্তু আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যসহ আয়োজকরা কর্মচারীদের বসানোর চেষ্টা করেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/06/1565081419257.jpg

কর্মচারীরা রাজি না হওয়ায় একজন ক্ষিপ্ত হয়ে বললেন, ‘ফ্রি মশারি নিতে হলে রোদে বসতে হবে।’ এ নিয়ে বাগ-বিতণ্ডার এক পর্যায়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর এক সদস্য বলেন, ‘বসবেন না তা আসছেন কেন?’ পর কেউ যাচ্ছেন, কিছু সময় বসে উঠে আসছেন। বেলা সোয়া ১১টায় স্পিকার মঞ্চে আসন গ্রহণ করার পর থেকে মশারি না হওয়া পর্যন্ত অনেকেই সেখানে বসে ছিলেন। কেউ কেউ ছাতাও মাথায় দিয়ে ছিলেন।

এদিকে স্পিকারের হাত থেকে মশারি গ্রহণের জন্য ১৭ জনকে বেলা ১১টা থেকে বক্তৃতা শেষ না হওয়া পর্যন্ত রোদে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। আর আয়োজকদের এই দায়িত্ব জ্ঞানহীনতারনিয়ে উপস্থিত সংসদ সদস্য, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ অনেককেই ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/06/1565081435051.jpg

ডেঙ্গু প্রতিরোধ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সংসদ সচিবালয়ে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের মধ্যে এক হাজার মশারি বিতরণ করা হয়। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবের সভাপতি প্রধান হুইপ নূর ই আলম চৌধুরী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, হুইপ ইকবালুর রহিম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি শামসুল হক টুকু, পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এ বি তাজুল ইসলাম, বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ, জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর