‘নির্ধারিত স্থানের বাইরে পশু কোরবানি করলে ব্যবস্থা’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ময়মনসিংহ
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নির্ধারিত স্থানের বাইরে উন্মুক্ত জায়গায় পশু কোরবানি করলেই আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু।

তিনি বলেছেন, ‘ঈদের দিন দুপুর থেকেই পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা মাঠে থাকবেন। কাউন্সিলররা পুরো বিষয়টি সমন্বয় করবেন। সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা প্রতিটি ওয়ার্ড, মহল্লা ঘুরে ঘুরে দেখবেন। কোনো অবস্থাতেই উন্মুক্ত স্থানে পশু কোরবানি করা যাবে না। যারা নির্দেশ অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) বিকেলে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

‘কোরবানির পশু নির্দিষ্ট স্থানে জবাইকরণ ও বর্জ্য দ্রুত অপসারণ বিষয়ে ব্যাপক প্রচারণা ও বাস্তবায়ন’ বিষয়ক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে সিটি করপোরেশন।

ময়মনসিংহ পৌরসভা সিটি করপোরেশনে উন্নীত হওয়ার আগে গত ৬ বছর যাবত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পশু বর্জ্য অপসারণে সুনাম কুঁড়িয়েছে। দীর্ঘদিনের অর্জিত এ সুনাম এবারও ধরে রাখার আহ্বান জানান মেয়র টিটু। তিনি বলেন, ‘৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করতে হবে। এ বিষয়ে কোনো কম্প্রোমাইজের সুযোগ নাই।’

শুধুমাত্র মশার ওষুধ ছিটিয়ে ডেঙ্গু নির্মুল সম্ভব নয় এজন্য জনসচেতনতাকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়ারও আহ্বান জানান মসিক মেয়র। তিনি বলেন, ‘এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করতে হবে। ডেঙ্গু প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে।’

সভায় ময়মনসিংহের ডেপুটি সিভিল সার্জন পরিক্ষিত কুমার পাল, মসিকের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম মিয়া, স্বাস্থ্য শাখার প্রধান এইচ কে দেবনাথ, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর দীপক মজুমদার, কনজারভেটিভ ইন্সপেক্টর মহব্বত আলী, চিফ সুপারভাইজার রবিউল ইসলামসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :