সারারাত বাসের অপেক্ষায়, কাউন্টারে যাত্রীদের হট্টগোল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
বাসের অপেক্ষায় ক্ষুদ্ধ যাত্রীরা, ছবি: সুমন শেখ

বাসের অপেক্ষায় ক্ষুদ্ধ যাত্রীরা, ছবি: সুমন শেখ

  • Font increase
  • Font Decrease

গাবতলী টার্মিনাল থেকে: সারারাত বাসের অপেক্ষায় থেকে উত্তেজিত যাত্রীদের তোপের মুখে পড়েন গাবতলীর উত্তরবঙ্গগামী হানিফ কাউন্টারের কর্মচারীরা। গরমের মধ্যে নারী ও শিশুদের নিয়ে চরম দুর্ভোগে থাকা যাত্রীরা ক্ষুদ্ধ হয় কাউন্টারে থাকা কর্মচারীদের উপর।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408345363.jpg

 

শনিবার (১০ আগস্ট) সকাল আটটায় গাবতলীর কাউন্টারগুলোতে গিয়ে দেখা যায়, যাত্রীদের চাপে কাউন্টারে পা ফেলা দায়। অনেকটা রাস্তার পাশেই যাত্রীরা গরমে-ঘামে অস্বস্তিকর পরিবেশে বাসের অপেক্ষায় আছেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408095674.jpg

 

সারারাত ধরে গাড়ি আসবে বলে কাউন্টারের লোকজন যাত্রীদের আশ্বস্ত করেন। একপর্যায়ে রাত পেরিয়ে সকাল হয়ে গেলে উত্তেজিত যাত্রীরা গাবতলী থেকে কল্যাণপুরমুখী রাস্তা অবরোধ করলে কিছুক্ষণের জন্য সব বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408119514.jpg

 

পরবর্তীতে পুলিশ পরিস্থিতি মোকাবিলা করে উত্তেজিত মানুষকে রাস্তা থেকে সরিয়ে নেয়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408138744.jpg

 

যাত্রীদের অভিযোগ, রাতের গাড়ি এখনও আসেনি অথচ রাতের যাত্রীদের কথা না ভেবে সকালের যাত্রীদের গাড়ি ছাড়া হচ্ছে। অনেক যাত্রী ১০/১২ ঘণ্টা ধরে বাসের অপেক্ষায় কাউন্টারে বসে আছেন।

কাউন্টারসূত্রে জানা গেছে,  শুক্রবার (৯ আগস্ট) রাত ১০টার শিডিউলের গড়ি এখনও কাউন্টারে আসেনি। ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পাঁচটি শিডিউলের সবগুলোরই বিপর্যয় হয়েছে। এসব গাড়ির বেশিরভাগ ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী ও পঞ্চগড়গামী।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408371869.jpg

 

তবে সকালে সাড়ে সাতটা থেকে ছেড়ে যাওয়া শিডিউলের গাড়ি কিছুটা বিলম্ব করে টার্মিনাল থেকে ছেড়ে গেছে।

পঞ্চগড়গামী যাত্রী রবিউল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, আমার বাস ছিলো গতকাল রাত ১০টায়। সারারাত অপেক্ষা করেছি। সকাল সাড়ে আটটা বাজে এখনও বাস আসেনি। প্রতিবছর একই অবস্থা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/10/1565408411401.jpg

 

নীলফামারীগামী যাত্রী নূর মোহাম্মদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, একেকজন যাত্রী ৩০০/৪০০ টাকা সিএনজি ভাড়া দিয়ে কাউন্টারে এসেছে। অথচ সারারাত তারা বাসের দেখা পায়নি। নারী ও শিশুদের অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছে।

পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর মাহবুবুর রহমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, আমাদের দায়িত্ব আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখা। আমরা সেটাই করার চেষ্টা করছি। সময়মত বাস ছাড়ার বিষয়টি বাস মালিকদের। তবে যাত্রী হয়রানি মেনে নেওয়া হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :